বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪ ৫ আষাঢ় ১৪৩১
 

নাফ নদী থেকে সরিয়ে নিয়েছে মিয়ানমারের যুদ্ধজাহাজ    জাপানে ভয়ঙ্কর ব্যাকটেরিয়ার থাবা, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই মৃত্যু    দ্বিতীয় সর্বোচ্চ টোল আদায়ের রেকর্ড পদ্মা সেতুতে     গাজীপুরে শ্রমিক অসন্তোষ, বেতনের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ    সেন্টমার্টিন আক্রান্ত হলে ছেড়ে দেব না: কাদের    সেন্টমার্টিন নিয়ে সরকারের নীরবতা দাসসুলভ আচরণ: ফখরুল    বৃক্ষরোপণের আহ্বান জানালেন প্রধানমন্ত্রী   
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা
মেহেরপুরের সাবেক মেয়র মতুসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা
মেহেরপুর প্রতিনিধি:
প্রকাশ: সোমবার, ২০ মে, ২০২৪, ১০:৩৩ অপরাহ্ন
সর্বশেষ আপডেট: সোমবার, ২০ মে, ২০২৪, ১১:০৮ অপরাহ্ন

মেহেরপুর প্রতিদিনের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক মাহাবুব চান্দুর দায়ের করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় মেহেরপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র মোতাচ্ছিম বিল্লাহ মতুসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত। 

রবিবার (১৯ মে) খুলনা বিভাগীয় সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক কনিকা বিশ্বাস এ আদেশ দেন। 

গ্রেপ্তারি পরোয়ানা প্রাপ্ত অন্য আসামিরা হলেন- সাবেক মেয়র মোতাচ্ছিম বিল্লাহ মতু, সৌমিক ব্রো, শামিম হাসান সোহাগ ও মেহেরাব হোসেন অপি। গত মাসের ৪ এপ্রিল আসামিরা ট্রাইব্যুনাল থেকে জামিন প্রাপ্ত হন। রবিবার (১৯ মে) আদালতের দিন ধার্য ছিলো। আদালতে আসামিরা হাজির হননি এমনকি তাদের পক্ষে কোন আইনজীবীও ছিলেন না। ফলে জামিন পাওয়ার পর তারা আদালতে হাজির না হওয়ায় আদালত তাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। 

এর আগে মামলার অপর আসামি সাইফুল বাহার স্বাধীন পলাতক থাকায় গত ৪ এপ্রিল তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন ট্রাইব্যুনাল। জানা গেছে, গত বছরের ২৯ আগষ্ট একই আদালতে মামলা দায়ের করেন সাংবাদিক মাহবুব চান্দু। মামলাটি আদালত আমলে নিয়ে কুষ্টিয়া পিবিআইকে তদেন্তর নির্দেশ দেন। পিবিআই তদন্ত শেষে গত ১৮ ফেব্রুয়ারি আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন। 

তদন্ত প্রতিবেদনে- পিবিআই মামলার অন্যতম আসামি মুত্তাকি বিল্লাহ শাফিনকে বাদ দিয়ে প্রতিবেদন জমা দিলেও আদালত মামলার গুরত্ব বিবেচনায় ৭ আসামিকে অন্তর্ভুক্ত করে সমন জারি করেন। গত ৪ এপ্রিল ৭ আসামির মধ্যে ৬ জন হাজির হয়ে জামিন আবদেন করলে আদালত তাদের জামিন মঞ্জুর করেন। বাকি একজন পলাতক থাকায় তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। মামলায় বাদীপক্ষে মিঠু চন্দ্র বসাক আইনজীবীর দায়িত্ব পালন করেন।

মামলার এজাহারে জানা গেছে, বাদী মেহেরপুর প্রতিদিনের অনুসন্ধানী কাজে গত বছরের ২৪ জুলাই সকাল ১১টা ৫৩ মিনিট থেকে দুপুর ১টা ১৬ পর্যন্ত মেহেরপুর সরকারী মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র ও জেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসে অনুসন্ধান মুলক কাজে নিয়োজিত ছিলেন।

আসামী মোতাচ্ছিম বিল্লাহ মতুর মেয়ে মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র এর চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত থাকাতে তিনি খবরটা জেনে ক্ষিপ্ত হন। তারপর মায়ের হাসি ক্লিনিকের মালিক হিসেবে তিনি মেহেরপুর প্রতিদিন পত্রিকার সম্পাদক ইয়াদুল মোমিনকে আনুমানিক ২টা ২৫ মিনিটের দিকে মোবাইলে ফোন দেন। এসময় তিনি ফোনে হুমকি দিয়ে বলেন তোমরা কি বারেখা হয়েছো, আমার মেয়ের বিরুদ্ধে তোমাদের দাঁত ভেঙ্গে দিব, ৫০টা চাঁদাবাজির মামলা দিব বলে ফোন কেটে দেন।

এ বিষয়ে ২৬ জুলাই মেহেরপুর প্রতিদিনের সম্পাদক, তাঁর পরিবার ও অফিসের স্টাফদের জীবনের নিরাপত্তার জন্য মেহেরপুর সদর থানাতে একটি জিডি করেন, যার নং ১৩৯১।

পরবতির্তে আসামী মোতাচ্ছিম বিল্লাহ মতু তার মালিকানাধীন মায়ের হাসি ক্লিনিকের ম্যানেজার আসামী সাইফুল বাহার স্বাধীনকে দিয়ে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সদর থানা মেহেরপুর বরাবর বাদীর নামে একটি মিথ্যা চাঁদাবাজির অভিযোগ লিখে থানায় অভিযোগটি জমা না দিয়ে মায়ের হাসি ক্লিনিক ফেসবুক আইডি থেকে পোষ্ট করে। 

অন্য আসামীরা বিভিন্ন কুটুক্তি ও বিষয়টিকে শেয়ার করে, লাইক দিয়ে অপপ্রচারে সহায়তা করেছে। আসামীরা একই বিষয় একাধিকবার সোসাল মিডিয়ায় প্রচার করে বিভিন্ন গ্রুপের মাধ্যমে ভাইরাল করেছে।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


Also News   Subject:  মেহেরপুর   মামলা  







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো. আক্তার হোসেন রিন্টু
বার্তা ও বাণিজ্যিক বিভাগ : প্রকাশক কর্তৃক ৮২, শহীদ সাংবাদিক সেলিনা পারভীন সড়ক (৩য় তলা) ওয়্যারলেস মোড়, বড় মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।
বার্তা বিভাগ : +8802-58316172. বাণিজ্যিক বিভাগ : +8801868-173008, E-mail: dailyjobabdihi@gmail.com
কপিরাইট © দৈনিক জবাবদিহি সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft