বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪ ৬ আষাঢ় ১৪৩১
 

নাফ নদী থেকে সরিয়ে নিয়েছে মিয়ানমারের যুদ্ধজাহাজ    জাপানে ভয়ঙ্কর ব্যাকটেরিয়ার থাবা, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই মৃত্যু    দ্বিতীয় সর্বোচ্চ টোল আদায়ের রেকর্ড পদ্মা সেতুতে     গাজীপুরে শ্রমিক অসন্তোষ, বেতনের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ    সেন্টমার্টিন আক্রান্ত হলে ছেড়ে দেব না: কাদের    সেন্টমার্টিন নিয়ে সরকারের নীরবতা দাসসুলভ আচরণ: ফখরুল    বৃক্ষরোপণের আহ্বান জানালেন প্রধানমন্ত্রী   
১৬০টিরও বেশি ভূমিকম্পে কাঁপল ইতালির নেপলস
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪, ১১:২৩ অপরাহ্ন

ইতালির দক্ষিণাঞ্চলীয় নেপলসের আশপাশের এলাকায় অনেকগুলো ভূমিকম্পের পর বাড়িঘর খালি করা হয়েছে এবং অনেক স্কুল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় সময় সোমবার সন্ধ্যায় ও রাতে ১৬০টিরও বেশি ভূমিকম্প রেকর্ড করা হয়েছে।

সবচেয়ে শক্তিশালী ৪.৪ মাত্রার কম্পনটি পোজুলি শহরের কাছে স্থানীয় সময় রাত ৮টার কাছাকাছি হয়। ইতালির ভূপদার্থবিদ্যা ও আগ্নেয়গিরির জাতীয় ইনস্টিটিউট আইএনজিভি বলেছে, এটি এ অঞ্চলে ৪০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী ভূমিকম্প।

নেপলসের মেয়র গাইতানো মানফ্রেদি স্বীকার করেছেন, বাসিন্দারা ভীত হতে পারে। তবে কর্মকর্তারা নজর রাখছেন বলেও জানান তিনি।

ভূমিকম্পের পর পোজুলিতে শতাধিক তাঁবু তৈরি করা হয় এবং কিছু বাসিন্দা রাতের অধিকাংশ সময় রাস্তায় কাটায়। কেউ কেউ আবার অন্যত্র আত্মীয়দের কাছে চলে যায়।

স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, গত কয়েক মাসে যে নিম্নস্তরের ভূমিকম্প হয়েছে তার কারণে বেশ কয়েকটি পরিবার পুরোপুরি এলাকা ছেড়ে যাওয়ার কথা ভাবছে। 

একটি গণমাধ্যম নেপলসের এক বাসিন্দাকে উদ্ধৃত করে বলেছে, তারা কখনো এত শক্তিশালী ভূমিকম্প অনুভব করেনি। এক ব্যক্তি ইল মাত্তিনো পত্রিকাকে বলেছেন, ‘এবার এটি জোরালো ছিল, মনে হয়েছিল এটি কখনোই শেষ হবে না।’

যদিও অবকাঠামোগত কোনো উল্লেখযোগ্য ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি।

তবে নেপলসের কিছু স্কুল মঙ্গলবার পরিদর্শনের জন্য বন্ধ ছিল এবং পোজুলিতে নারীদের একটি কারাগার সতর্কতা হিসেবে খালি করা হয়।

ভবিষ্যতে ‘আরো গুরুতর ভূমিকম্প হতে পারে’ বলে সতর্ক করে মেয়র মানফ্রেদি বলেছেন, কর্মকর্তাদের ‘এই জরুরি পরিস্থিতি পরিচালনা করতে হবে, যার সঙ্গে আমাদের কয়েক মাস বেঁচে থাকতে হবে’।

এক বিবৃতিতে তিনি আরো বলেন, ‘আমি মানুষকে ভয় না করতে বলতে পারি না। কারণ এটি স্বাভাবিক। তবে আমি নেপোলিটানদের বলতে পারি, আমরা (পরিস্থিতি) মনোযোগ দিচ্ছি ও পর্যবেক্ষণ করছি।

এর আগে কখনো এই অঞ্চলটিকে এত নিবিড়ভাবে দেখা হয়নি, তাই আসুন আমরা যতটা সম্ভব স্বাভাবিকভাবে বেঁচে থাকার চেষ্টা করি।’

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো. আক্তার হোসেন রিন্টু
বার্তা ও বাণিজ্যিক বিভাগ : প্রকাশক কর্তৃক ৮২, শহীদ সাংবাদিক সেলিনা পারভীন সড়ক (৩য় তলা) ওয়্যারলেস মোড়, বড় মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।
বার্তা বিভাগ : +8802-58316172. বাণিজ্যিক বিভাগ : +8801868-173008, E-mail: dailyjobabdihi@gmail.com
কপিরাইট © দৈনিক জবাবদিহি সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft