বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪ ৫ আষাঢ় ১৪৩১
 

নাফ নদী থেকে সরিয়ে নিয়েছে মিয়ানমারের যুদ্ধজাহাজ    জাপানে ভয়ঙ্কর ব্যাকটেরিয়ার থাবা, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই মৃত্যু    দ্বিতীয় সর্বোচ্চ টোল আদায়ের রেকর্ড পদ্মা সেতুতে     গাজীপুরে শ্রমিক অসন্তোষ, বেতনের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ    সেন্টমার্টিন আক্রান্ত হলে ছেড়ে দেব না: কাদের    সেন্টমার্টিন নিয়ে সরকারের নীরবতা দাসসুলভ আচরণ: ফখরুল    বৃক্ষরোপণের আহ্বান জানালেন প্রধানমন্ত্রী   
দই খেলে কি হয়, কী বলছেন পুষ্টিবিদরা?
প্রকাশ: শনিবার, ১১ মে, ২০২৪, ৪:৩৭ অপরাহ্ন

গরম থেকে বাঁচতে খাবার তালিকায় দই রাখার পরামর্শ দিচ্ছেন অনেকেই। বলা হয়, নিয়মিত দই খেলে নাকি প্রচণ্ড গরমে ঠান্ডা থাকে শরীর। কিন্তু, এ কথা কি আদৌ সত্যি? আসলেই কি দই খেলে শরীর ঠান্ডা থাকে? কী বলছে পুষ্টিবিদরা? 

পুষ্টির খনি দই
প্রোটিনের ভাণ্ডার বলা হয় দইকে। তাই শরীরে প্রোটিনের ঘাটতি মেটাতে নিয়মিত দই খান। এছাড়াও এতে আছে সোডিয়াম, পটাশিয়াম, ক্যালশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ভিটামিন এ, ভিটামিন ডি, ভিটামিন বি ১২-এর মতো জরুরি ভিটামিন ও খনিজ। দেহের পুষ্টির ঘাটতি মেটাতে উপযুক্ত একটি খাবার এটি। 

দই কি শরীর ঠান্ডা করে?
পুষ্টিবিদদের মতে, গরমের দিনে নিয়মিত দই খেলে ঠান্ডা থাকে শরীর। এটি হিট স্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিও কমায়। দইয়ে থাকা পটশিয়াম ও সোডিয়াম দেহে ইলেকট্রোলাইটসের ভারসাম্যও ফেরাতে পারে। তাই গরমের দিনে প্রতিদিন খেতে পারেন দই। নিয়মিত পান করতে পারেন দই দিয়ে তৈরি ঘোল ও লাচ্ছি। এতেই সুস্থ থাকতে পারবেন আপনি। 

পেটের সমস্যা থাকবে দূরে 
গরমে গ্যাস, অ্যাসিডিটির প্রকোপ খুব বাড়ে। গরমের মধ্যে পেটের সমস্যার ফাঁদ এড়াতে চাইলে নিয়মিত দই খান। এটি উপকারী ব্যাকটেরিয়ার ভাণ্ডার। যা অন্ত্রের হাল ফিরতে সাহায্য করে। আর কোলোন সুস্থ থাকলে অনায়াসে গ্যাস, অ্যাসিডিটি, পেট খারাপ, কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো সমস্যার থেকে দূরে থাকা যায়। 

হাড় হবে শক্ত 
আজকাল কম বয়সেই অনেকে হাড়ের ক্ষয়জনিত রোগে ভোগেন। সারাজীবন সুস্থ থাকতে চাইলে অবশ্যই হাড়ের জোর বাড়াতে হবে। এ কাজে আপনাকে সাহায্য করবে ভিটামিন ডি ও ক্যালশিয়াম সমৃদ্ধ দই। পাশাপাশি দইতে থাকা ল্যাকটোব্যাসিলাসের গুণে বাড়বে ইমিউনিটিও। তাই আর সময় নষ্ট না করে আজ থেকেই নিয়মিত দই খান। এতে একাধিক রোগ থেকে দূরে থাকতে পারবেন। 

মিষ্টি দই খাওয়া চলবে না 
দই খেয়ে উপকার পেতে চাইলে মিষ্টি দই খাওয়া চলবে না। এমনকি অত্যধিক তেল, বনস্পতি মিশ্রিত টক দই খেলেও মিলবে না উপকার। এর পরিবর্তে বাড়িতেই বানিয়ে নিন ফ্যাট লেস দুধের দই। চাইলে এই দই দিয়ে ঘোল, লস্যি বানিয়েও খেতে পারেন। আশা করছি, এতেই স্বাস্থ্যের হাল-হকিকত বদলে যাবে।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো. আক্তার হোসেন রিন্টু
বার্তা ও বাণিজ্যিক বিভাগ : প্রকাশক কর্তৃক ৮২, শহীদ সাংবাদিক সেলিনা পারভীন সড়ক (৩য় তলা) ওয়্যারলেস মোড়, বড় মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।
বার্তা বিভাগ : +8802-58316172. বাণিজ্যিক বিভাগ : +8801868-173008, E-mail: dailyjobabdihi@gmail.com
কপিরাইট © দৈনিক জবাবদিহি সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft