শনিবার ১৮ মে ২০২৪ ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
 

৪ বিভাগে আবারো তাপপ্রবাহের সতর্কবার্তা    পাঠ্যবই থেকে ‘শরীফার গল্প’ বাদ দেয়ার সুপারিশ    র‍্যাবের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করছে না যুক্তরাষ্ট্র    ৬ জুন বাজেট দেব, বাস্তবায়নও করব: প্রধানমন্ত্রী    আজ শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস     রাজধানীতে নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে নিহত ২    কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫    
গরমে পেট খারাপ হলে করণীয় কী?
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২৪, ৮:২৮ অপরাহ্ন

তীব্র গরমে তাপমাত্রার মধ্যেই সবাইকে কাজে বের হতে হচ্ছে। অনেক ক্ষেত্রে খাদ্যাভ্যাসেও হচ্ছে অনিয়ম। এর ফলে দেখা দিচ্ছে লুজ মোশন বা পেট খারাপ। 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পেট খারাপ ভালো করতে ঘরোয়া প্রতিকার অনুসরণ করতে পারেন। তাহলে পেট ঠান্ডা হবে, সেই সঙ্গেও পেটের অস্বস্তিও দূর হবে।  

পেট ঠান্ডা রাখতে যা খাবেন-

ডাবের পানি: ডাবের পানি একটি প্রাকৃতিক ইলেক্ট্রোলাইট-সমৃদ্ধ তরল, যা ডিহাইড্রেশন প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে। হাইড্রেটেড থাকার জন্য যখনই পারবেন
ডাবের পানি পান করুন।

দই : দইয়ে প্রোবায়োটিক রয়েছে। যা একটি উপকারী ব্যাকটেরিয়া। এটি অন্ত্রের ব্যাকটেরিয়ার ভারসাম্য পুনরুদ্ধার করতে এবং পেট খারাপ বন্ধ করতে সাহায্য করতে পারে। প্রতিদিন ১-২ কাপ সাধারণ এবং মিষ্টি ছাড়া দই খান। এটি পেট ঠান্ডা রাখবে।

কলা : পটাসিয়াম সমৃদ্ধ কলা শরীরে তরল ভারসাম্য নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে। সেই সঙ্গে পেট খারাপ কমায়। পেট ঠান্ডা রাখতে প্রতিদিন ১-২ টি পাকা কলা খান বা দই এবং মধু দিয়ে একটি কলার স্মুদি তৈরি করুন। এতেও স্বস্তি পাবেন।

আদা চা : আদার প্রাকৃতিক অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি এবং অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্য রয়েছে। যা পরিপাকতন্ত্রকে প্রশমিত করতে এবং পেটখারাপ কমাতে সাহায্য করতে পারে। আদা চা তৈরি কীভাবে করবেন-

এক কাপ গরম পানিতে কয়েক টুকরো তাজা আদা দিয়ে দিন। ৫-১০ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর স্বাদমত মধু যোগ করুন এবং প্রতিদিন ২-৩ কাপ পান করুন।

জিরা : জিরায় প্রাকৃতিক অ্যান্টিফাঙ্গাল এবং অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্য রয়েছে। যা পেট খারাপ ভালো করতে সাহায্য করতে পারে। এজন্য শুকনো একটি প্যানে এক চা চামচ জিরা ভাজুন এবং গুঁড়ো করে নিন।  এক কাপ পানিতে ওই পাউডার মিশিয়ে দিনে ২ থেকে ৩ বার পান করুন।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই গরমের সময় ক্যাফিনযুক্ত এবং অ্যালকোহলযুক্ত পানীয়গুলি এড়ানো উচিত। কারণ, এগুলি ডিহাইড্রেশন বাড়ায়। পাশাপাশি একটি সুষম এবং পুষ্টিকর খাদ্য গ্রহণ করতে ভুলবেন না। এর পাশাপাশি খাওয়ার আগে ও টয়লেট ব্যবহারের পর সঠিক স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করুন।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো. আক্তার হোসেন রিন্টু
বার্তা ও বাণিজ্যিক বিভাগ : প্রকাশক কর্তৃক ৮২, শহীদ সাংবাদিক সেলিনা পারভীন সড়ক (৩য় তলা) ওয়্যারলেস মোড়, বড় মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।
বার্তা বিভাগ : +8802-58316172. বাণিজ্যিক বিভাগ : +8801868-173008, E-mail: dailyjobabdihi@gmail.com
কপিরাইট © দৈনিক জবাবদিহি সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft