বুধবার ২৪ এপ্রিল ২০২৪ ১১ বৈশাখ ১৪৩১
 

কাতার-বাংলাদেশের মধ্যে ১০ চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই    ৩২ টাকা কেজিতে ধান, ৪৫ টাকায় চাল কিনবে সরকার    মালিবাগে ট্রেনের ধাক্কায় নিরাপত্তাকর্মী নিহত    জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম থেকে ব্যারিস্টার খোকনকে অব্যাহতি    ইরানের ওপর যুক্তরাষ্ট্র-যুক্তরাজ্যের নতুন নিষেধাজ্ঞা    পানির নিচে দুবাই বিমানবন্দর, ব্যাপক বিশৃঙ্খলা    ইরানের ওপর চাপ বাড়াচ্ছে পশ্চিমা দেশগুলো   
এই গরমে শরীর শীতল রাখবেন যেভাবে
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ৪ এপ্রিল, ২০২৪, ৫:৪২ অপরাহ্ন

সূর্যের প্রচণ্ড দাবদাহে অতিষ্ঠ জনজীবন। রিমঝিম বর্ষার সেই সজীবতা আর নেই প্রকৃতিতে। প্রচণ্ড দাবদাহে বাড়ছে পানিশূন্যতা, ডায়রিয়ার প্রাদুর্ভাব। এ সময় শরীরকে শীতল রাখার উপায়গুলো জানা থাকলে গরমের অস্বস্তিকে মোকাবিলা করা কিছুটা হলেও সম্ভব।

আয়ুর্বেদ বলে, গরমে মানুষের পিত্ত তীব্র হয়ে ওঠে। তাই শরীরে শীতলভাব বজায় রাখতে চাইলে সবার আগে খাদ্যতালিকা থেকে পিত্তবর্ধক খাবারগুলো বাদ দিতে হবে। মনে রাখতে হবে, পাকস্থলী বা পেট গরম হলেই শরীরে অস্বস্তিভাব বেশি অনুভূত হয়। 

*চলুন জেনে নেই গরমে যেসব ফল খাবেন-

কাঁচা আম, তরমুজ, বাঙ্গি ও শসার মতো ফলমূল খেতে পারেন। 

*পানীয়জল হিসেবে যা খাবেন-

আখের রস, ডাবের পানি, বেলের শরবত, পুদিনার শরবত জিরাপানি ও লেবুর শরবত।

তাপদাহের সময় প্রচুর পরিমাণে পানি পান করা খুবই জরুরি। তাপদাহে গরম পানি পান করা অস্বস্তিকর হলেও গরম পানি পান করতে অনেকেই পরামর্শ দেন।

এর যুক্তি হিসেবে বলা হচ্ছে, গরম পানি পানে অল্প সময়েই শরীরের উষ্ণতা বেড়ে যায়। ফলে প্রচুর ঘাম ঝরতে থাকে শরীর থেকে। এতে করে শরীরও ঠাণ্ডা হয়ে যায় খুব দ্রুত, থাকা যায় সতেজ। উল্লেখ্য, প্রতি ঘণ্টায় মানবদেহ দুই লিটারের বেশি ঘাম ঝরাতে পারে। ফলে শরীরের তাপমাত্রা কমাতে এটি একটি ভালো পদ্ধতি হতে পারে। আবার অনেকে গরমে ঠাণ্ডা পানি পানের পরামর্শ দেন। এ নিয়েও কিছু গবেষণা হয়েছে। ফলাফলে দেখা গেছে, ঠাণ্ডা পানি পানে সতেজ হওয়া যায় দ্রুত। যে কারণে পুষ্টিবিদরা ঠাণ্ডা পানি পান করতে পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

তবে জাপানের অটোয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের থার্মোরেগুলেটরি ফিজিওলজি'র সহযোগী অধ্যাপক ওলি জে ও তার দল শরীরে বিভিন্ন স্থানে ৮টি থার্মোমিটার রেখে একটি পরীক্ষা করেন। ফলাফলে দেখা যায়, গরম পানি দ্রুত শরীর শীতল করে থাকে। কারণ গরম পানিতে শরীর থেকে ঘাম নির্গত হয় বেশি।

জীবনযাত্রায় যেসব পরিবর্তন আনবেন-

গরমে হালকা রংয়ের পোশাক পরতে হবে। গাঢ় রংয়ের পোশাক তাপমাত্রা শোষণ করে বলে গরম অনুভূত হয় বেশি। গরমের সবচেয়ে উপকারী পোশাক হলো সাদা রংয়ের পোশাক। গরমে সিনথেটিক পোশাক এড়িয়ে চলবেন। সবসময় সুতি ও লিনেনের ঢিলা পোশাক পরার চেষ্টা করুন।

গরমে সূর্যের অতিবেগুনী রশ্মি থেকে যতটা সম্ভব দূরে থাকার চেষ্টা করুন। রোদে গেলে মাথায় রাখুন চওড়া ক্যাপ, স্কার্ফ অথবা সঙ্গে রাখুন ছাতা। ত্বকে মাখুন সানস্ক্রিন ক্রিম কিংবা লোশন। গোসলে যাওয়ার আগে নারকেল তেল মাখতে পারেন।

খুব ভোরে বা সূর্য ডোবার পরই একমাত্র ভারী ব্যায়াম করতে পারেন। রোদের মধ্যে ভারী ব্যায়াম করলে মাসলে ক্র্যাম্প ধরা থেকে হিটস্ট্রোকসহ আরও নানা ধরনের সমস্যা হতে পারে। এতে উপকারের থেকে অপকারই বেশি হওয়ার সম্ভাবনা।

সিগারেট, জর্দা বা নেশাজাতীয় দ্রব্য খাওয়ার অভ্যাস থাকলে তা এখনই ত্যাগ করুন। ধূমপানে শরীরকে আরও গরম করে তোলে।

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: মো. আক্তার হোসেন রিন্টু
বার্তা ও বাণিজ্যিক বিভাগ : প্রকাশক কর্তৃক ৮২, শহীদ সাংবাদিক সেলিনা পারভীন সড়ক (৩য় তলা) ওয়্যারলেস মোড়, বড় মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।
বার্তা বিভাগ : +8802-58316172. বাণিজ্যিক বিভাগ : +8801868-173008, E-mail: dailyjobabdihi@gmail.com
কপিরাইট © দৈনিক জবাবদিহি সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft