শনিবার ২৫ জুন ২০২২ ১০ আষাঢ় ১৪২৯

পাকিস্তানে কাগজ সংকটের কারণে শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ    আ. লীগের সভা, তাই শিমুলিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ ঘোষনা    পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিন বিএনপির হরতাল দেওয়ার সাহস নেই: পরিকল্পনামন্ত্রী    সরকার নয়, দেশের মানুষ আনন্দ উল্লাস করছে: তথ্যমন্ত্রী    শুধু সময়ের অপেক্ষা আ.লীগের পতন: জাগপা সভাপতি    বাংলাদেশ দুই, উইন্ডিজ দলে এক পরিবর্তন    সেন্ট লুসিয়ায়ও আগে ব্যাট করবে বাংলাদেশ   
অবশেষে ৬০০ বছর পর জানা গেলো প্লেগ রোগের উৎপত্তি
প্রকাশ: বুধবার, ২২ জুন, ২০২২, ১১:৩২ পূর্বাহ্ন

ব্ল্যাক ডেথ নামে পরিচিত প্লেগ রোগের উৎপত্তিস্থল আবিষ্কার করা গেছে বলে বিশ্বাস করছেন গবেষকরা। 

ইউরোপ, এশিয়া এবং উত্তর আফ্রিকায় রোগটি কোটি কোটি মানুষের মৃত্যু ঘটানোর ছয়শ’ বছরের বেশি সময় পর এই তথ্য জানতে পারে বিজ্ঞানীরা।

চতুর্দশ শতাব্দীর মাঝামাঝির এই স্বাস্থ্য বিপর্যয়কে মানব ইতিহাসের সবচেয়ে তাৎপর্যপূর্ণ স্বাস্থ্য বিপর্যয় বলে মনে করা হয়। কিন্তু বছরের পর বছর গবেষণা চালিয়েও বিজ্ঞানীরা বুবোনিক প্লেগের উৎপত্তি কোথায় তা জানাতে পারছিলেন না। কিন্তু এবার বিশ্লেষণে ইঙ্গিত পাওয়া গেছে মধ্য এশিয়ার কিরগিজস্তানে ১৩৩০ এর দশকে এই রোগের উদ্ভব।

স্কটল্যান্ডের স্টারলিং ইউনিভার্সিটি, জার্মানির ম্যাক্স প্লাঙ্ক ইনস্টিটিউট এবং ইউনিভার্সিটি অব তুবিনজেনের একদল গবেষক কিরগিজস্তানের ইসিক কুল লেকের কাছের একটি কবরস্থান থেকে সংগ্রহ করা সাতটি কংকালের ডিএনএ নমুনা বিশ্লেষণ করে। কারণ, ১৩৩৮ এবং ১৩৩৯ সালে সেখানে দাফনের সংখ্যা ব্যাপকভাবে বেড়ে যায় লক্ষ্য করার পরে তারা এলাকাটি বেছে নেন।

গবেষনাগারে সাতটি কংকালের ডিএনএ নমুনা বিশ্লেষণ করে।এসব কংকালের দাঁত বিশ্লেষণ করার কারণ এতে অনেক রক্তনালী রয়েছে এবং গবেষকদের  ধারণা, ‘রক্তবাহিত রোগজীবাণু শনাক্ত করার উচ্চ সম্ভাবনা থাকায় যা ব্যক্তিদের মৃত্যুর কারণ হতে পারে’। গবেষক দলটি তিনটি কঙ্কালে প্লেগ ব্যাকটেরিয়া, ইয়ারসিনিয়া পেস্টিস খুঁজে পান।

তবে গবেষণাটির কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে। এর একটি হচ্ছে কম সংখ্যক নমুনা। নিউ জিল্যান্ড ইউনিভার্সিটি অব ওটাগোর ড. মাইকেল ক্নাপ ওই গবেষণায় জড়িত না থেকেও একে ‘সত্যিই মূল্যবান’ আখ্যা দিয়েছেন। তবে তার মতে, ‘অনেক বেশি ব্যক্তি, সময় এবং অঞ্চলের ডেটা এখানে উপস্থাপিত বিদায় আসলে এখানে কী বোঝায় তা স্পষ্ট করতে সাহায্য করবে।’

গবেষণা কাজটি ন্যাচার জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। এর শিরোনাম ‘চতুর্দশ শতাব্দীতে মধ্য ইউরোএশিয়ায় ব্ল্যাক ডেথের উৎস’।

বুবোনিক প্লেগ কী?
প্লেগ একটি সম্ভাব্য প্রাণঘাতী সংক্রামক রোগ যা ইয়েরসিনিয়া পেস্টিস নামক ব্যাকটেরিয়া দ্বারা সৃষ্টি হয়। প্রধানত ইঁদুরসহ কিছু প্রাণী এবং সেগুলোর বাহকে এই ব্যাকটেরিয়ার বাস।

বুবোনিক প্লেগ এই রোগের সবচেয়ে সাধারণ রূপ যা মানুষকে আক্রান্ত করে। রোগের লক্ষণ থেকে এই নাম এসেছে। আক্রান্তদের চামড়া ফুলে যাওয়া বা কুঁচকি কিংব বগলে 'বুবোস' দেখা যায়।

২০১০ থেকে ২০১৫ সালের মধ্যে বিশ্বজুড়ে ৩ হাজার ২৪৮ জনের এই রোগে আক্রান্তের তথ্য পাওয়া যায়। তাদের মধ্যে ৫৮৪ জনের মৃত্যু হয়।

ঐতিহাসিকভাবে এটিকে ব্ল্যাক ডেথ নামেও ডাকা হতো। শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ যেমন আঙ্গুল এবং পায়ের আঙ্গুল কালো হয়ে যাওয়া এবং শেষে মৃত্যু এই রোগকে ভয়ঙ্কর করে তোলে।



জ/ আল

« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »







  সর্বশেষ সংবাদ  
  সর্বাধিক পঠিত  
এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
সম্পাদক ও প্রকাশক : আক্তার হোসেন রিন্টু
বার্তা ও বাণিজ্যিক বিভাগ : প্রকাশক কর্তৃক ৮২, শহীদ সাংবাদিক সেলিনা পারভীন সড়ক (৩য় তলা) ওয়্যারলেস মোড়, বড় মগবাজার, ঢাকা-১২১৭
বার্তা বিভাগ : +8802-58316172, বাণিজ্যিক বিভাগ : +8802-58316175,+8801711443328, E-mail: [email protected]ail.com, [email protected]
কপিরাইট © দৈনিক জবাবদিহি সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft