শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১২:৪৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দেশে করোনায় আরও ২০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৫৪৪০ মানিকগঞ্জে নারী হত্যায় স্বামী-স্ত্রী গ্রেপ্তার সুন্দরবনের রুপার খাল থেকে মৃত বাঘ উদ্ধার দিনাজপুরের হিলিতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৬.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস শেরপুরের হরিজনরা পাচ্ছেন ছয়তলা ভবন অসহায় শিক্ষার্থীদের পাশে  হিরন ও হমিদা এডুকেশনাল ট্রাস্ট দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা কুড়িগ্রামে ৬ দশমিক ১ ডিগ্রী সেলসিয়াস উজিরপুরে ব্রিজ ভেঙে ভেকুসহ লরি খালে ফেনী সমিতি ঢাকার উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ পাকিস্তানে সন্ত্রাসীদের হামলায় ১০ সেনা নিহত ফেব্রুয়ারিতেই ইউক্রেনে হামলা করতে পারে রাশিয়া : বাইডেন হন্ডুরাসের প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট জিওমারা কাস্ত্রো ঘরে ফিরে মুশফিকদের কাছে হারল চট্টগ্রাম ভোলায় বেগুন চাষে কৃষকদের মাঝে সাড়া ব্রাজিলকে রুখে দিল ইকুয়েডর এবারের আইপিএলের সব খেলা হবে এক শহরে! মেসি বিহীন জিতলো আর্জেন্টিনা রাজধানীতে ইয়াবা-হেরোইনসহ ৫৯ জন গ্রেফতার ইউক্রেন সংকট নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠক ডেকেছে যুক্তরাষ্ট্র ভারতী এয়ারটেলে শত কোটি ডলার বিনিয়োগ গুগলের

৩০ বছরে মারা যাবে ৩০ হাজার মানুষ: টিআইবি

রিপোর্টারের নাম
প্রকাশের সময় : শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১২:৪৫ পূর্বাহ্ন
৩০ বছরে মারা যাবে ৩০ হাজার মানুষ: টিআইবি

কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের দূষণের ফলে তিন দশকে ৩০ হাজার মানুষের মৃত্যু হতে পারে বলে আশঙ্কা করছে টিআইবি। চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে পরিকল্পিত আটটি কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের দূষণের ফলশ্রুতিতে এই মৃত্যুর আশঙ্কা করে সংস্থাটি। এছাড়া জাপান সরকারের অর্থায়নে কক্সবাজারের মাতারবাড়ীতে স্থাপিত হয়েছে কয়লা প্রকল্পের দূষণের ফলে ঝুঁকিতে রয়েছেন আরও ১৪ হাজার মানুষ।

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) দুপুরে যুক্তরাজ্যের গ্লাসগোতে আসন্ন কপ-২৬ জলবায়ু সম্মেলন নিয়ে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) অবস্থান ও সুপারিশপত্র প্রকাশের জন্য ভার্চ্যুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানিয়েছে সংস্থাটি। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান টিআইবির ক্লাইমেট ফাইন্যান্স পলিসি ইন্টিগ্রিটির প্রোগ্রাম ম্যানেজার মো. মাহফুজুল হক।

টিআইবি জানিয়েছে, রামপাল, মাতারবাড়ী, বাঁশখালীসহ বাংলাদেশে মোট ১৯টি বড় কয়লা ও এলএনজিভিত্তিক প্রকল্প বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত রয়েছে। এতে উপকূলীয় জেলাগুলোতে দেড় লাখ মানুষের জীবন-জীবিকা আরও হুমকির মুখে পড়ার আশঙ্কা আছে। পাশাপাশি পরিবেশেরও ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে। তাই ২০২১ সালের পর কয়লা জ্বালানি নির্ভর নতুন কোনো প্রকল্প অনুমোদন ও অর্থায়ন না করার ঘোষণা প্রদানের পাশাপাশি নবায়নযোগ্য জ্বালানি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে কার্যকর নীতি ও বিনিয়োগের দাবি জানায় সংস্থাটি।

প্যারিস চুক্তি অনুযায়ী, জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য দায়ী শিল্পোন্নত দেশগুলোকে প্রতিবছর ক্ষতিপূরণ বাবদ ১০০ বিলিয়ন ডলার দেওয়ার কথা থাকলেও, তারা তা দিচ্ছে না। এর জের ধরে জলবায়ুর পরিবর্তনের বড় শিকার বাংলাদেশও ক্ষতিপূরণ পাচ্ছে না। টিআইবি বলছে, প্যারিস চুক্তি–পরবর্তী সময়ে এই বিষয়গুলো নিয়ে সমঝোতায় পৌঁছানোর জন্য এই সম্মেলনই শেষ সুযোগ।

আসন্ন জাতিসংঘ জলবায়ু সম্মেলন-কপ ২৬ উপলক্ষে ১৪ দফা দাবি জানায় টিআইবি।

দাবিগুলো হলো- জলবায়ু বিষয়ক নীতি নির্ধারণে জীবাশ্ম জ্বালানি কোম্পানিগুলোর অনৈতিক হস্তক্ষেপ বন্ধ করতে হবে, ২০৫০ সালের মধ্যে ‘নেট জিরো’ লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে আইএনডিসিসহ প্রশমন বিষয়ক সকল কার্যক্রমে উন্নত দেশগুলোর স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে, ২০৫০ সালের মধ্যে নবায়নযোগ্য উৎস থেকে শতভাগ জ্বালানি উৎপাদনে উন্নত দেশগুলোকে পর্যাপ্ত জলবায়ু তহবিল ও প্রযুক্তি হস্তান্তর এবং কারিগরি সহায়তা প্রদানে সিভিএফ এর পক্ষ থেকে সমন্বিতভাবে দাবি উত্থাপন করতে হবে, দুর্যোগের ক্ষয়-ক্ষতি মোকাবেলায় একটি ক্ষয়-ক্ষতি বিষয়ক আলাদা তহবিল গঠন করতে হবে।

এছাড়া বাংলাদেশের জন্য বাস্তবায়নযোগ্য সুপারিশের মধ্যে রয়েছে- বাংলাদেশে নবায়নযোগ্য জ্বালানির উৎপাদন বৃদ্ধিতে এখাতের জন্য স্বল্প, মধ্যম ও দীর্ঘমেয়াদি সময়াবদ্ধ পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে এবং সুনির্দিষ্ট রূপরখা প্রণয়ন করে প্রশমন বিষয়ক কার্যক্রম স্বচ্ছতার সাথে বাস্তবায়নে পদক্ষেপ নিতে হবে, বিশেষ করে- এখাতে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বিনিয়োগ বৃদ্ধি সহায়ক নীতিমালা প্রণয়ন ও অবিলম্বে সেগুলো বাস্তবায়ন করতে হবে।

টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান বলেন, শিল্পোন্নত দেশগুলো কীভাবে নবায়নযোগ্য জ্বালানির উৎসে যাবে, সে জন্য পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। এটি করতে অনেকেই ব্যর্থ হচ্ছে। অন্যদিকে উন্নত দেশগুলোকে জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতির মুখে থাকা দেশগুলোকে ক্ষতিপূরণ বাবদ প্রতিবছর ১০০ বিলিয়ন ডলার দেওয়ার কথা রয়েছে। সেই অর্থ যথাযথভাবে ছাড় করার উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। তিনি মনে করেন, পরিবেশ সুরক্ষা করার জন্য সময় ফুরিয়ে যাচ্ছে। এই সম্মেলনে বাংলাদেশ বেশি সক্রিয় ভূমিকা পালন করতে পারে।


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: