বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ১২:৪২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার সংস্কৃতি গড়ে তোলার জন্য ডিসিদের প্রতি রাষ্ট্রপতির নির্দেশ হারিয়ে যাওয়া টাকা উদ্ধারের পর প্রকৃত মালিককে প্রদান ডিমলায় শিশু ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতার ২ কুড়িগ্রামের সোনাভরি নদী থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার কাপাসিয়ায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন! অভিনেত্রী শিমুকে খুন করেন স্বামী, লাশ গুম করে বাল্যবন্ধু জাকার্তা নয়, ইন্দোনেশিয়ার নতুন রাজধানী ‘নুসানতারা’ ‘উন্নয়ন প্রকল্পের তদারকিতে ডিসিরাও থাকবেন’ রুপগঞ্জ বাজার বণিক সমিতির সদস্যদের সাথে পুলিশ সুপারের মতবিনিময় শিবগঞ্জে নবনিবার্চিত চেয়ারম্যানদের নিয়ে মাসিক সভা খুলনায় মাদক বিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ৪ চাঁপাইনবাবগঞ্জে মাদকসহ গ্রেপ্তার ১ শিবগঞ্জের বিনোদপুর কলেজে নবীনবরণ অনুষ্ঠিত শেরপুরে বৃদ্ধার মাথা ফাটানো সেই নাতনি-পুত্রবধূ গ্রেফতার হিলিতে শীতের তীব্রতা বেড়েছে বইছে হিমেল বাতাস মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের মর্যাদাপূর্ণ জীবন নিশ্চিত করুন : ডিসিদের প্রতি প্রধানমন্ত্রী অনুমতি না নিয়ে নিউজ করলে খুব খারাপ হবে! শ্রীবরদীতে বিনামূল্যে চক্ষু সেবা ক্যাম্প জামালপুরে হেরোইনসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ফেরি স্বল্পতার কারণে যানবাহনের দীর্ঘ সারি

হিলি স্থলবন্দরে চাল আমদানি বন্ধ

হিলি, দিনাজপুর প্রতিনিধি:
প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ১২:৪২ পূর্বাহ্ন

সরকারের বেঁধে দেওয়া চুক্তি অনুযায়ী রোববার (৩১ অক্টোবর) থেকে দিনাজপুরের হিলি স্থালবন্দর দিয়ে চাল আমদানি বন্ধ রয়েছে। কারণ দেশের চালের বাজারদর ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণে সরকার চলতি বছরে বেশকিছু পদক্ষেপ নেয়। এতে গত ২৫ আগস্ট ৪০০ জন আমদানিকারককে সাড়ে ১৬ লাখ মেট্রিক টন চাল আমদানির অনুমতি দেয়। এর মধ্যে ১৪ লাখ ৫৩ হাজার মেট্রিক টন ছিল সিদ্ধ চাল ও এক লাখ ৯৭ হাজার মেট্রিক টন আতপ চাল। শনিবার (৩০ অক্টোবর) ছিল চাল আমদানি শেষ দিন। ৩১ অক্টোবর থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ব্যবসায়ীরা আর চাল আমদানি করতে পারবেন না।

মোটা চাল প্রতি মেট্রিক টন ৩৭০ থেকে ৩৮০ ডলার এবং চিকন চাল প্রতি মেট্রিক টন ৪২৫ থেকে ৪৭০ ডলার মূল্যে আমদানি হচ্ছে। তবে শর্ত ছিল ৩০ অক্টোবরের মধ্যে এ সমস্ত চাল ভারত থেকে আমদানি শেষ করতে হবে।

হিলি স্থালবন্দরের আমদানি-রপ্তানি গ্রুপের সভাপতি হারুন-ইর রশিদ জানান, দেশের বাজারে চালের দাম স্বাভাবিক রাখতে বাংলদেশ সরকার চাল আমদানি করতে অনুমতি দিয়েছিলো। তবে ভরা মৌসুমে চাল আমদানির কারণে চাষিরা ন্যায্যমূল্য না পেয়ে আর্থিক ক্ষতির শিকার হয়। এতে সরকার চাষিদের বাঁচাতে চাহিদা মতো চাল আমদানিতে আমদানিকারকদের তালিকা ও চাল আমদানির পরিমাণ ও সময় নির্ধারণ করে দিয়েছিলো। গত শনিবার (৩০ অক্টোবর) থেকে সেই সময় শেষ হয়েছে। যার জন্য হিলি স্থালবন্দর দিয়ে চাল আমদানি আপাততো বন্ধ আছে। ইতি মধ্যে এলসি করা সব চাল হিলি বন্দরে প্রবেশ করেছে। সরকার অনুমতি দিলে আবারও এই বন্দর দিয়ে চাল আমদানি শুরু হবে।

হিলি কাস্টমসের উপকমিশনার কামরুল হাসান জানান, খাদ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী শনিবার (৩০ অক্টোবর) পর্যন্ত ব্যবসায়ীরা চাল আমদানি করতে পেরেছেন। পরবর্তী নির্দেশ না এলে হিলি স্থালবন্দর দিয়ে কোন চালের ট্রাক বন্দরে প্রবেশ করবে না।


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: