বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০২:৩৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার সংস্কৃতি গড়ে তোলার জন্য ডিসিদের প্রতি রাষ্ট্রপতির নির্দেশ হারিয়ে যাওয়া টাকা উদ্ধারের পর প্রকৃত মালিককে প্রদান ডিমলায় শিশু ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতার ২ কুড়িগ্রামের সোনাভরি নদী থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার কাপাসিয়ায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন! অভিনেত্রী শিমুকে খুন করেন স্বামী, লাশ গুম করে বাল্যবন্ধু জাকার্তা নয়, ইন্দোনেশিয়ার নতুন রাজধানী ‘নুসানতারা’ ‘উন্নয়ন প্রকল্পের তদারকিতে ডিসিরাও থাকবেন’ রুপগঞ্জ বাজার বণিক সমিতির সদস্যদের সাথে পুলিশ সুপারের মতবিনিময় শিবগঞ্জে নবনিবার্চিত চেয়ারম্যানদের নিয়ে মাসিক সভা খুলনায় মাদক বিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ৪ চাঁপাইনবাবগঞ্জে মাদকসহ গ্রেপ্তার ১ শিবগঞ্জের বিনোদপুর কলেজে নবীনবরণ অনুষ্ঠিত শেরপুরে বৃদ্ধার মাথা ফাটানো সেই নাতনি-পুত্রবধূ গ্রেফতার হিলিতে শীতের তীব্রতা বেড়েছে বইছে হিমেল বাতাস মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের মর্যাদাপূর্ণ জীবন নিশ্চিত করুন : ডিসিদের প্রতি প্রধানমন্ত্রী অনুমতি না নিয়ে নিউজ করলে খুব খারাপ হবে! শ্রীবরদীতে বিনামূল্যে চক্ষু সেবা ক্যাম্প জামালপুরে হেরোইনসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ফেরি স্বল্পতার কারণে যানবাহনের দীর্ঘ সারি

সড়কের মাঝে বিদুত্যের একাধিক খুঁটি রেখেই সংস্কার

কালীগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধি:
প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০২:৩৫ পূর্বাহ্ন

গাজীপুর কালীগঞ্জের তুমলিয়া ক্রেডিট ইউনিয়নের সামনে থেকে বতুল বাজার পর্যন্ত সড়কের সংস্কার কাজ শেষ করা হয়েছে। অথচ বেশ কিছু পল্লী বিদ্যুতের খুঁটি রেখে সড়কের মাঝেই রেখে দেওয়া হয়েছে। ফলে স্থানীয়রা এই সড়কে দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছেন।

জানা গেছে, বন্যা ও দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ পল্লী অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় প্রায় ৮ কোটি টাকা ব্যয়ে বন্যা রক্ষা বাঁধের উপর নির্মিত এ সড়কটির সংস্কার ও বর্ধিত করণের উদ্যোগ নেয় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর। সড়কের প্রস্থ বাড়িয়ে ১৮ ফিট করা হয়। ২০২০ সালের ২০ জুলাই স্থানীয় সাংসদ ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি সড়ক সংস্কার ও বর্ধিত করণ কাজ উদ্বোধন করেন। প্রায় ৬ কিলোমিটার দীর্ঘ সড়কের কাজটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান প্রবাল ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেডকে দেওয়া হয়।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, তুমলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের পাশেই রয়েছে বোয়ালী উচ্চ বিদ্যালয়। ওই স্কুল লাগোয়া বোয়ালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ও রয়েছে। এর কিছু দূর গেলে একই এলাকায় বোয়ালী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। ওই সড়কে রয়েছে সেন্ট মেরিস স্কুল অ্যান্ড কলেজ। আর ওই সড়কে প্রায় ১০/১২ টি বৈদ্যুতিক খুঁটি রয়েছে যেগুলো সড়কের উপরে দাঁড়িয়ে। স্থানীয়দের প্রবল আপত্তির পরও সংস্কারের সময় খুঁটিগুলো সড়ক থেকে সরানো হয়নি।

ওই সড়ক সংলগ্ন দক্ষিণ ভাদার্ত্তী গ্রামের বাসিন্দা নজরুল ইসলাম জানান, রাস্তা সংস্কারের সময় অনেকেই বৈদ্যুতিক খুঁটির ব্যাপারে আপত্তি জানিয়ে ছিল। কিন্তু কর্মকর্তারা এসব কথায় কর্ণপাত করেননি। ওই সড়ক দিয়ে কয়েকটি প্রাথমিক ও উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের কারণে দুর্ঘটনার আশঙ্কা বেশি। স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা এ সড়ক দিয়েই আসা যাওয়া করে। পাশাপাশি ভারি যানবাহনের চাপ তো রয়েছেই। তাই অতিদ্রুত সড়কের উপর থেকে বৈদ্যুতিক খুঁটি সরানোর দাবি করেন তিনি।

বোয়ালী গ্রামের বাসিন্দা আশীষ পিটার গমেজ জানান, এই সড়কের পাশে বেশ কিছু কারখানা গড়ে উঠেছে। যে কারণে সেখানে ভারি যানবাহন চলাচল করে। আর এই সব যানবাহনের কারণেই সড়কটি তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে অচল ছিল দীর্ঘদিন। বহু প্রতিক্ষার পর রাস্তা যদিও সংস্কার হলো কিন্তু সমস্যা আবার বেড়েও গেল। রাস্তার পাশে বৈদ্যুতিক খুঁটিগুলো সরানো হয়নি। যে কারণে শঙ্কা রয়েই গেল। যেকোন সময় ঘটতে পারে দুর্ঘটনা। আর এ থেকে রক্ষা পেতে হলে অবশ্যই সড়কের উপর থেকে বৈদ্যুতিক খুঁটি সরানো উচিত। এ ব্যাপারে তুমলিয়া ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. মাহফুজুর রহমান বলেন, আমি ইতিমধ্যে বেশ কয়েকবার পল্লী বিদ্যুতের ডিজিএমের সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি জানিয়েছেন এটা যদি কোন ব্যক্তির জমির উপর দিয়ে যেতো তাহলে দ্রুত সরিয়ে নেওয়া যেতো। যেহেতু এটি একটি প্রাতিষ্ঠানিক কাজ তাই এলজিইডিকে পল্লী বিদ্যুতের জিএম বরাবর একটি আবেদন করতে হবে। আর আবেদনের প্রেক্ষিতে খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে সরিয়ে দিবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

তুমলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আবু বকর মিয়া বলেন, বিষয়টি আমার নজরে এসেছে। ওই সড়কের পাশের এক ইউপি সদস্য ইতোমধ্যে পল্লী বিদ্যুত কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছেন। পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ আশ্বস্ত করেছেন,তারা দ্রুত তা সরিয়ে নিবেন। উপজেলা প্রকৌশলী বেলাল হোসেন সরকার বলেন, আমরা খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে পল্লী বিদ্যুতের জিএম বরাবর আবেদন পাঠাব। তারপর বাকি কাজ তাদের। আবেদনের পর কতদিন লাগবে তা তারা ভালো বলতে পারবে।

পল্লী বিদ্যুৎ কালীগঞ্জ জোনাল অফিসের ডিজিএম বলেন, বিষয়টি মৌখিকভাবে অবগত হয়েছি। যেহেতু এটি একটি ভিন্ন দাপ্তরিক কাজ তাই মৌখিকভাবে কাজ করার সুযোগ নেই। সড়কটি এলজিইডির দায়িত্বে থাকায় আমরা সরাসরি কোনভাবেই হস্তক্ষেপ করতে পারিনা। প্রতিষ্ঠানটি যদি আমাদের জিএম বরাবর আবেদন করে তাহলে সেক্ষেত্রে আমরা দ্রুত খুঁটি সরানোর কাজ সম্পন্ন করতে পারি। আগেও উপজেলার ভিন্ন ভিন্ন স্থানে এ সমস্যা হয়েছিল। আমরা তা সমাধান করে দিয়েছি।


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: