বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:০৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ধামইরহাটে নৌকা প্রার্থী ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান আলী কমলের বিশাল কর্মী সভা গাইবান্ধায় স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদন্ড বাড়িতে বাবার লাশ রেখে পরীক্ষা হলে মেরাজ শিবগঞ্জে নদী ভাঙন আতঙ্কে গ্রামবাসী, পরিদর্শনে পাউবি বকশীগঞ্জে তিন করাত কল মালিককে জরিমানা নাচোল উপজেলা চেয়ারম্যান কাদেরের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ মানিকগঞ্জে পুলিশ সুপারের সাথে বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের মতবিনিময় সভা দেড়বছর পর যাত্রা করলো বেনাপোল এক্সপ্রেস ক্যামব্রিয়ানের কোটি কোটি টাকা রাজস্ব ফাঁকি কৃষি জমি নষ্ট করে বালু ভরাট চলমান উন্নয়নকে প্রশ্নের মুখে শিবপুরে দরিদ্র কৃষকের স্বপ্ন ভেঙে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা লেডি বাইকার রিয়াকে আগাম জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট দশ বছরে টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হবে: প্রধানমন্ত্রী ‘অতিশয় বৃহৎ সংগ্রামের’ জন্য প্রস্তুত হতে বললেন কিম এবার প্রতিবেশী ভারতে ‘ওমিক্রন’ শনাক্ত মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর হামলায় পালাচ্ছে হাজার হাজার বাসিন্দা আগামী তিন দিন বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে- আবহাওয়া অধিদপ্তর কমলো এলপি গ্যাসের দাম অভিবাসীর সংখ্যায় বিশ্বে বাংলাদেশ ষষ্ঠ চাঁপাইনবাবগঞ্জে তথ্য অধিকারের গুরুত্ব নিয়ে সংলাপ অনুষ্ঠিত

সন্তানের পিতৃ পরিচয়ের দাবীতে অনশন

রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:০৬ অপরাহ্ন
সন্তানের পিতৃ পরিচয়ের দাবীতে অনশন

সন্তানের পিতৃ পরিচয়ের দাবীতে অনশন করছেন শিরিনা বেগম (২৯) নামের এক গৃহবধু। ঘটনাটি ঘটেছে গত ৫ নভেম্বর কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলার চরশৌলমারী ইউনিয়নের উত্তর খেদাইমারী গ্রামে। বিচার চেয়ে গ্রাম্যমাতাব্বরদের দ্বারে দ্বারে ঘুরলেও বিচার পাচ্ছেন না। ভুক্তভোগী ওই গৃহবধু বাদী হয়ে রৌমারী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ ও পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার বড় চর গ্রামের শুক্কুর আলীর মেয়ে শিরিনা ও একই ইউনিয়নের উত্তর খেদাইমারী গ্রামের মহির উদ্দিনের ছেলে শুক্কুর আলী দীর্ঘদিন থেকে ঢাকা গাজিপুর এক গার্মেন্টস এ চাকুরি করে আসছেন। সেই সুবাদে তাদের দুজনের মধ্যে পরিচয় হয় এবং প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরে উভয়ের মতামতের ভিত্তিতে তারা ২০১৩ সালে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। ইতোমধ্যে তাদের ঘরে মিম আক্তার নামের ৮ বছর বয়সি একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে। গত ২ মাস আগে গৃহবধুর স্বামী শুক্কুর আলী তার স্ত্রীকে কিছু না জানিয়ে নিজবাসা রৌমারীতে চলে আসেন এবং স্ত্রী ও সন্তানের সাথে যোগাযোগ একেবারেই বন্ধ করে। পরে ওই গৃহবধু শিরিনা স্বামীর খোঁজে নিজ এলাকায় আসেন এবং গৃহবধু জানতে পারেন তার স্বামী বাড়িতেই রয়েছেন। সংবাদ শোনে স্ত্রী শিরিনা ও মেয়ে মৌসুমীকে নিয়ে স্বামী শুক্কুর আলীর বাড়িতে যান। এসময় শুক্কুর আলী তাদের বিয়ের কথা অস্বীকার করেন। অপরদিকে তার জন্মগত মেয়েকেও অস্বীকার করছেন। পাশাপাশি গ্রাম্যমাতাব্বর শাহাবুদ্দিন, খালেক ও সোনাউল্লাহ গৃহবধুর সংসার টিকিয়ে দিতে তার কাছে মোটা অঙ্কের অর্থ দাবী করে। এই অর্থ দিতে অস্বীকার করলে তার উপর নেমে আসে অমানবিক নির্যাতন। শুধু তাই নয়, গৃহবধুর ও সন্তানকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়। মা ও মেয়ে বর্তমানে নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন।
চরশৌলমারী ইউপি চেয়ারম্যান একেএইচএম সাইদুর রহমাম দুলাল সত্যতা স্বীকার করে বলেন মা ও মেয়ে আমার কাছে বিচার চেয়েছে। তার স্বামী শুক্কুর আলীকে বিচারের তারিখ দিলে সে বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়।
রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোন্তাছের বিল্লাহ জানান, এবিষয়ে অভিযোগ পেয়েছি এবং গুরত্বসহকারে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: