শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০১:২৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ঘানায় ভয়াবহ বিস্ফোরনে নিহত ১৭ দুই সপ্তাহের জন্য সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিরামপুরে মাদক মামলায় নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য গ্রেফতার দাঁড়িয়ে থাকা ট্রলিতে ধাক্কা লেগে মোটরসাইকেল আরোহী নিহত নীলফামারীতে সড়ক দূর্ঘটনায় নারী শ্রমিক নিহত পটুয়াখালীতে আনসার-ভিডিপি সদস্যদের বাই-সাইকেল বিতরন গৌরীপুরে বিধু ভূষণ দাস স্মরনে আওয়ামী লীগের শোকসভা অনুষ্ঠিত ব্যাংকের সর্বনিম্ন বেতন নির্ধারণ করে সার্কুলার জারি ইভ্যালি ইস্যুঃ হাইকোর্টে তাহসানের আগাম জামিন মানিকগঞ্জে বড়ভাইকে হত্যার দায়ে ছোট ভাইয়ের মৃত্যুদন্ডাদেশ ফেনীতে প্রতারণায় সহায়তার অভিযোগে ৩ জনের কারাদন্ড জোর করে ওষুধ খাইয়ে গর্ভের সন্তান নষ্ট, আদালতে স্বীকারোক্তি মেহেরপুরে সাজাপ্রাপ্ত দুই পলাতক আসামি আটক এখন থেকে রাতেও নৌযান চলবে ‘বঙ্গবন্ধু মোংলা-ঘাষিয়াখালী ক্যানেলে’ মেসিকে বাদ দিয়েই আর্জেন্টিনা দল ঘোষণা আফগানিস্তানে চাকরি হারিয়েছে পাঁচ লাখের বেশি মানুষ আইপি টিভি-ইউটিউবে সংবাদ প্রচার নীতিমালা বিরোধী: তথ্যমন্ত্রী শেরপুরে রাস্তার পাশে বীর মুক্তিযোদ্ধার লাশ! পটুয়াখালীর দুমকিতে মসজিদ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন বোনকে উত্যক্তের প্রতিবাদ করায়, ভাইয়ের পা ভেঙে দিল বখাটে

লাখ-লাখ নয়, কোটি-কোটি মানুষ বেকার: জি এম কাদের

রিপোর্টারের নাম
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০১:২৮ অপরাহ্ন
লাখ-লাখ নয়, কোটি-কোটি মানুষ বেকার: জি এম কাদের

দেশের পরিস্থিতি সার্বিকভাবে ভালো নয় মন্তব্য করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় উপনেতা জি এম কাদের বলেছেন, মানুষের জীবনের কোনো নিরাপত্তা নেই। মানুষের ইজ্জতের কোনো মূল্য নেই। ঘর থেকে বের হলে দুর্ঘটনা ঘটছে। বেকার সমস্যার কারণে মাদক কারবারি বাড়ছে।

কোটি কোটি মানুষ মাদকের দিকে চলে যাচ্ছে। এটা আগামী প্রজন্মের জন্য ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি করতে পারে।
মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) দুপুরে রংপুর সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে জি এম কাদের আরও বলেন, লাখ লাখ নয়, ‘কোটি কোটি মানুষ বেকার। বেকার সমস্যা একটা চরম পর্যায়ে চলে গেছে। আমি অবজার্ভ করে দেখেছি, মানুষ ফুটপাতের অর্ধেকটা দখল করে থাকে কেন? বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করা ছেলেরা ফুটপাতে বসে হকারি করছে। তারা স্কুটার চালায়, সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালায়। পাঠাও বা উবার চালিয়ে তারা জীবিকা নির্বাহের চেষ্টা করে। বেকার সমস্যা এমন একটা পর্যায়ে গেছে যে, মানুষ তাদের ভিটেমাটি বিক্রি করে ছেলেদের বিদেশে পাঠাতে বাধ্য হচ্ছে। ’

‘এবার ওমিক্রন যদি বড় ধরনের আঘাত হানে তাহলে আমরা সম্পূর্ণ প্রস্তুত, এ কথা বলা ঠিক হবে বলে মনে হয় না। বলেন জি এম কাদের।

তিনি বলেন, আমাদের স্বাস্থ্যব্যবস্থা কতটা নাজুক তা গতবার করোনা পরিস্থিতিতে বোঝা গেছে। আমরা মনে করি, সরকারকে এখনই এ বিষয়ে দৃষ্টি দিতে হবে। উপজেলা পর্যায়ে আইইসিইউ সুবিধা, সব মানুষকে টিকার আওতায় আনা ও উন্নত বিশ্ব যেভাবে ব্যবস্থা নিচ্ছে সেভাবে ব্যবস্থা গ্রহণের কথা আমরা বারবার বলেছি। কিন্তু সরকার যেটা করেছে সেটা যথেষ্ট নয়।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, বর্তমান নির্বাচন কমিশন নির্বাহী বিভাগকে কাজে লাগাতে পারছে না। অথচ সংবিধানের ১২৬ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী নির্বাহী বিভাগ নির্বাচনসংক্রান্ত বিষয়ে নির্বাচন কমিশনকে সহযোগিতা করবে। কিন্তু বাস্তবে চিত্র উল্টো। কমিশন এই ধারা ব্যবহার করতে পারছে না। নির্বাচন কমিশন নির্দেশ দিলেও নির্বাহী বিভাগ তা পালন করছে না।


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: