সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ০৯:৩১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মুসলিম হওয়ায় মন্ত্রিত্ব ‘হারান’ ব্রিটিশ নারী এমপি অর্ধেক জনবলে চলবে সরকারি-বেসরকারি অফিস, প্রজ্ঞাপন জারি চিত্রনায়িকা শাবনাজ করোনায় আক্রান্ত এরদোগানকে অপমান করার অভিযোগে তুর্কি সাংবাদিক কারাগারে কুড়িগ্রাম-লালমনিরহাট সীমান্তে জব্দকৃত মাদক ধ্বংস ফেনী-১ আসনের সংসদ সদস্য শিরীন আখতার করোনায় আক্রান্ত যশোরে ট্রাক চোরকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ মানিকগঞ্জে এ,এম সায়েদুর রহমান স্মৃতি টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট শুরু ফেনীতে করোনা উপসর্গে নারীর মৃত্যু মোংলা বন্দর জেটিতে রাবার ফেন্ডার স্থাপন চুক্তি স্বাক্ষর পীরগঞ্জে কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হিলিতে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় পথচারীকে জরিমানা মেহেরপুরে করোনা আক্রান্ত ১০ জন চাঁপাইনবাবগঞ্জে মাদক মামলায় যাবজ্জীবন চাঁদপুরের মেঘনা নদীতে ব্যবসায়ীদের দুটি ট্রলারে ডাকাতি হাকিমপুরে নাগরিক কমিটি গঠন যশোরে ২৪ ঘন্টায় ১ শ ৯৪ জন করোনায় আক্রান্ত সোনাগাজীতে টিকা নিতে আসা শিক্ষার্থীদের মাঝে ছাত্রলীগের পানি বিতরণ পুতিনকে নিয়ে মন্তব্য, পদত্যাগ করেছেন জার্মান নৌবাহিনী প্রধান করোনা টিকা প্রতি বছর দেওয়ার নিয়ম চান ফাইজার সিইও

বিএনপি’র পায়ের নিচে মাটি নেইঃ ওবায়দুল কাদের

রিপোর্টারের নাম
প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ০৯:৩১ পূর্বাহ্ন
বিএনপি বিভ্রান্তি সৃষ্টির রাজনীতিতে বিশ্বাসী : ওবায়দুল কাদের

‘সরকারের পায়ের নিচে মাটি নেই, এমন বক্তব্য বিএনপি নেতারা একযুগ ধরেই দিয়ে আসছেন। প্রকৃতপক্ষে সরকার নয়, বিএনপি’র পায়ের নিচেই মাটি নেই। তাদের পায়ের নিচে মাটি থাকলে তো তারা রাজপথে নামতো, নির্বাচনেও আসতো।’ শনিবার (৩০ অক্টোবর) নিজ বাসভবনে ব্রিফিংকালে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।
আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আ.লীগ পরমতসহিষ্ণু বলেই বিএনপি এখনো রাজনীতি করতে পারছে। নেতিবাচক ও ষড়যন্ত্রের রাজনীতির জন্য বিএনপি’র পায়ের নিচে মাটি নেই। তাই তারা শিকড় থেকে বিচ্ছিন্ন এবং নির্বাচন বিমুখ।’

তিনি বলেন, ‘১৫ ফেব্রুয়ারির ভোটারবিহীন নির্বাচনের মাধ্যমে বিএনপিই গণতন্ত্রকে বঙ্গোপসাগরে ফেলতে চেয়েছিলো। সোয়া এক কোটি ভুয়া ভোটার সৃষ্টি করে তারাই গণতন্ত্রকে ধূলিসাৎ করতে চেয়েছিলো। এমনকি বিএনপি সংবিধান থেকে গণতন্ত্র ও গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের মূলোৎপাটনও করেছে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ও শেখ হাসিনা গণতন্ত্রের রক্ষাকারী। জিয়াউর রহমান সেনাপ্রধান থাকাকালীন হ্যাঁ-না ভোট করে গণতন্ত্রকে হত্যা করেছিলো। গণতন্ত্র বিকাশের পথে বহু বাধা-বিপত্তি অতিক্রম করে শেখ হাসিনা গণতন্ত্রকে সঠিক পথে এনেছেন।’

তিনি বলেন, ‘অন্যদিকে বিএনপি তাদের অগণতান্ত্রিক আচরণ এবং ষড়যন্ত্রের রাজনীতি দিয়ে গণতন্ত্র বিকাশে পদে পদে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে। গণতন্ত্রকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেওয়া এখন সময়ের ব্যাপার। কিন্তু বিএনপি যদি বিরোধীদল হিসেবে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতো, তাহলে গণতন্ত্র প্রাতিষ্ঠানিক রূপ পেতে খুব দীর্ঘ সময়ের প্রয়োজন হতো না।’

তিনি আরও বলেন, ‘সরকার ও বিরোধীদল উভয়ে মিলেই গণতন্ত্রকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে পারে। কিন্তু সেখানে বিরোধীদল গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার পথে বারবার বাধা সৃষ্টি করছে। বিএনপি আন্দোলন ও নির্বাচনে ব্যর্থ হয়ে এখন সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে দেশ ও সরকারের বিরুদ্ধে উসকানি দিচ্ছে।’

কাদের বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সহনশীল বলেই পঁচাত্তরে জাতির পিতাকে সপরিবারে হত্যা, একুশে আগস্ট শেখ হাসিনাকে টার্গেট করে হত্যাচেষ্টা করার পরেও আওয়ামী লীগ প্রতিশোধ পারায়ণ হয়নি।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘দেশের জনগণ শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বের প্রতি আস্থাশীল। জনগণ সরকারের ওপর খুশি বলেই বিএনপি’র গাত্রদাহ হয়। বিএনপি চেয়েছিলো দেশের মানুষ না খেয়ে রাস্তায় মরে পড়ে থাকুক। কিন্তু তা হয়নি বলে বিএনপি’র অন্তর্জ্বালা শুরু হয়েছে।’


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: