শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০১:৩৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশের ম্যাচ সূচি ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ে এগোল বাংলাদেশ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সুপার টুয়েলভে স্কটল্যান্ড কক্সবাজারে আটক ব্যক্তিই ইকবাল হোসেনঃ এসপি উখিয়ায় রোহিঙ্গাদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত বেড়ে ৭ অসুস্থ গাফফার চৌধুরীকে ফোন করে খোঁজ-খবর নিলেন রাষ্ট্রপতি স্কটল্যান্ড হারলে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ কক্ষপথে স্যাটেলাইট স্থাপনে ব্যর্থ হয়েছে দ. কোরিয়া স্কুল শিক্ষার্থীদের টিকা এ মাসেই: স্বাস্থ্যমন্ত্রী বন্ধ হচ্ছে না বৈধ-অবৈধ মোবাইল ফোন মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ ২১৩ অভিবাসী আটক হিন্দুদের ওপর হামলা দেশের চেতনার বেদীমূলে হামলা : তথ্যমন্ত্রী জানুয়ারিতে বাড়তে পারে ক্লাসের সংখ্যা: শিক্ষামন্ত্রী ব্যাট-বলের ভারসাম্যে খুশী মাহমুদুল্লাহ ধামইরহাটে উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনে পুনরায় দেলদার হোসেন সভাপতি ও সম্পাদক শহীদুল ইসলাম বিশাল জয়ে বিশ্বকাপের মূল পর্বে টাইগাররা ‘বিএনপি নেতারা রাজনীতি নয়, অফিসিয়াল দায়িত্ব পালন করছেন’ গোয়ালন্দ উপজেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি গঠন মালিঙ্গাকে ছাড়িয়ে আফ্রিদিকে ধরে ফেললেন সাকিব রাডার কিনতে ফ্রান্সের সঙ্গে চুক্তি সই

বাংলাদেশে তাপমাত্রা আরো বাড়বে- বিশ্বব্যাংক

রিপোর্টারের নাম
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০১:৩৫ অপরাহ্ন
বাংলাদেশে তাপমাত্রা আরো বাড়বে- বিশ্বব্যাংক

আগামী ২০৫০ সালের মধ্যে বাংলাদেশের তাপমাত্রা ১ দশমিক ৪ ডিগ্রী সেলসিয়াস বাড়বে বলে বিশ্বব্যাংকের এক গবেষণায় জানিয়েছে। প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, গত ৪৪ বছরে বাংলাদেশের তাপমাত্রা বেড়েছে শূন্য দশমিক ৫ ডিগ্রী সেলসিয়াস। প্রতিবেদন অনুযায়ী, তাপমাত্রা বৃদ্ধির পেছনে ৬৩ ভাগ স্থানীয় সমস্যাকে দায়ী করেছে বিশ্বব্যাংক।

গবেষণায় বাংলাদেশের তাপমাত্রা বৃদ্ধির পেছনে বিশ্বের উষ্ণতা বৃদ্ধির প্রভাব ৩৭ শতাংশ, বাকি ৬৩ শতাংশের পেছনে স্থানীয় কারণ রয়েছে। গবেষণায় ১৯৮৩ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত ৩৩ বছর ধরে বিশ্বের ১৩ হাজার শহরের উষ্ণতা ও আর্দ্রতা পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে।

তাপমাত্রা দ্রুত বৃদ্ধির পরিনামে বাংলাদেশের মানুষের শারীরিক ও মানসিক নানা রোগের প্রকোপ বাড়ছে। বিশ্বব্যাংকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে বর্তমানে যে তাপমাত্রা রয়েছে তা ডেঙ্গু রোগের বিস্তারের বড় কারণ। ঢাকা ও চট্টগ্রামের মানুষের হতাশা ও উদ্বিগ্নতার হার বেশি জাতীয় গড় হারের তুলনায়। এই প্রতিবেদন বাংলাদেশের জন্য সতর্ক বার্তা হিসেবে নেয়া প্রয়োজন বলে মনে করেন গবেষক ও সংশ্লিষ্টরা।

সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত শহর ঢাকা প্রসঙ্গে ওই গবেষণায় বলা হয়েছে, ১৯৮৩ সালে এই শহরে জনসংখ্যা ৪০ লাখ থাকলেও এখন দুই কোটি ২০ লাখ মানুষ বসবাস করে। গবেষণায় বলা হয়েছে, শহরগুলোতে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি ও জীবনযাত্রার মান বৃদ্ধি পাচ্ছে ঠিকই, কিন্তু অনেক জায়গায় জনসংখ্যা দ্রুত বৃদ্ধির কারণে সেখানকার তাপমাত্রা চরম হয়ে উঠছে। বিশেষ করে, গত কয়েক দশকে লাখ লাখ মানুষ গ্রাম ছেড়ে শহরে আসায় সেখানে দ্রুত জনসংখ্যার বৃদ্ধি হয়েছে, সেই সঙ্গে বেড়েছে তাপমাত্রা।


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: