রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১২:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ফরিদপুরের সালথায় ইমাম বাড়িতে ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা একনজরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ১৬ দলের খেলোয়াড় তালিকা অবশেষে নগরীতে নামলো স্বস্তির বৃষ্টি সৌদি জোটের হামলা: ইয়েমেনে নিহত ১৬০ ডেঙ্গুতে চলতি বছর আক্রান্ত ২১ হাজার ২শ ছাড়াল প্রতিদিন টিকা পাবে ৪০ হাজার শিশু ডেঙ্গু আক্রান্ত ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী মার্কিন যুদ্ধজাহাজকে রাশিয়ার ধাওয়া টেকসই স্যানিটেশন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সমন্বিত প্রয়াসের আহ্বান ‘সরকার সবার জন্য নিরাপদ স্যানিটেশন নিশ্চিত করতে বদ্ধপরিকর’ ওমরাহ যাত্রীদের জন্য নতুন নির্দেশনা সাম্প্রদায়িক সংঘাতের চেষ্টায় আ.লীগের এজেন্টরা জড়িত: ফখরুল দ্রব্যমূল্য থেকে মানুষের চোখ সরাতেই কুমিল্লার ঘটনা: মান্না এই সরকারের অধীনে আর কোনো নির্বাচন নয়: সাকি প্রচণ্ড তাপে পুড়ছে দেশের ১৮ অঞ্চল সকালে দলের সঙ্গে যোগ দিলেন সাকিব রুহিয়া থানা বিএনপির মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত গোবিন্দগঞ্জে শহীদ মিনারের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন গাইবান্ধায় বিশ্ব খাদ্য দিবস পালিত অস্ত্রসহ একজনকে আটক করেছে র‌্যাব-৫

ফুলছড়িতে অর্ধশত পরিবারের বসতভিটা নদী গর্ভে বিলিন

গাইবান্ধা প্রতিনিধি
প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১২:৩৭ পূর্বাহ্ন
ফুলছড়িতে অর্ধশত পরিবারের বসতভিটা নদী গর্ভে বিলিন

গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলায় ব্যাপক নদী ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। ফুলছড়ি উপজেলার ফুলছড়ি ইউনিয়নের পিপুলিয়া গ্রামে ব্যাপক নদী ভাঙ্গনে গত কয়েক দিনে অর্ধশত পরিবারের ঘরবাড়ি, ফসলি জমিসহ গাছপালা ব্রহ্মপুত্র নদের গর্ভে বিলীন হয়েছে। হুমকির মুখে পড়েছে একটি আদর্শ গ্রাম, দুটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, দুটি মসজিদ, একটি ঈদগাঁ মাঠসহ কয়েকশত পরিবারের ঘরবাড়িসহ ফসলি জমি। নদী ভাঙ্গনে গৃহহীন হয়ে পড়া মানুষগুলো আত্নীয়-স্বজনের বাড়ি ও বিভিন্ন ফাঁকা স্থানে আশ্রয় নিচ্ছে। হুমকির মুখে পড়া পরিবারগুলো বাড়ি-ঘর, আসবাবপত্র, গাছপালা ও জিনিসপত্র সরিয়ে নিচ্ছে। নদী ভাঙনে সর্বস্ব হারিয়ে মানুষ মানবেতর জীবন যাপন করছে। চোখের সামনে ব্রহ্মপত্রের বুকে একের পর এক বিলীন হচ্ছে ঘরবাড়ি ও ফসলি জমি। অসহায়ের মত দেখা ছাড়া তাদের কিছুই করার নাই। তবে যাদের করার আছে তারা কার্যকরী কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করছেন না বলে অভিযোগ ভাঙ্গন কবলিত মানুষের। এলাকাবাসী বলেন নদী ভাঙ্গন প্রতিরোধে পদক্ষেপ গ্রহণ করা না হলে পিপুলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কমিউনিটি সেন্টার স্কুল, পিপুলিয়া সরকারি আদর্শ গ্রামসহ পিপুলিয়া গ্রামটি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাবে। ফুলছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল গফুর মন্ডল বলেন, নদীভাঙ্গনে গৃহহীন পরিবারগুলো বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধসহ বিভিন্ন স্থানে আশ্রয় নিয়েছে। তাদের মাঝে জিআর ও ভিজিএফ কর্মসূচির আওতায় নগদ টাকাসহ চাল বিতরণ করা হয়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড গাইবান্ধার নির্বাহী প্রকৌশলী মোখলেছুর রহমান বলেন, ভাঙ্গন রোধে প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: