রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৩৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ফিনল্যান্ড থেকে নিউইয়র্কের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী যে দেশে বেকারত্বের রেকর্ড সর্বনিম্ন ভবন ও রাস্তা নির্মাণে ভালো ইট তৈরি ও সরবরাহের নির্দেশ: তাজুল ইসলাম ফখরুলসহ ৫১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি ২১ নভেম্বর দেশে আরও ২৪১ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি নির্দিষ্ট গোষ্ঠী আমাদের হুমকি দিয়েছিল: ডেভিড হোয়াইট তৃণমূলের নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগের প্রাণ : তথ্যমন্ত্রী আরও তিন শাখা উদ্বোধন হলো প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের খাদে পড়ল বাস ৩০ যাত্রী নিয়ে সরকার খালেদা জিয়াকে ভয় পায় : মির্জা ফখরুল দেশে করোনায় শনাক্ত নামল ছয় শতাংশের নিচে সামঞ্জস্যপূর্ণ সাজার চর্চা নিশ্চিতে নীতিমালা প্রণয়নে হাইকোর্টের রুল নিজ চার সন্তানকে বিষ খাইয়ে, আগুন পুড়ে আত্মহত্যাচেষ্টা মায়ের! মামলায় ‘পলাতক’, অথচ স্কুলের বেতন তুলছেন শিক্ষক রাণীশংকৈলে বীরঙ্গনা ঐক্য সংঘের সমাবেশ ইঁদুর মারার বিষকে চকলেট ভেবে খেয়ে শিশুর প্রাণ গেল বিয়ে বাড়িতে ছবি তোলাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে আহত ২০ কালকিনিতে প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে বেঁড়া দিয়ে চাষাবাদ লোকালয়ে আসা হরিণ বনে ফেরত বাংলাদেশ চাইলে নির্বাচন প্রক্রিয়ায় সহযোগিতা করবে জাতিসংঘ

প্রতিশ্রুতি ভাঙছে তালেবান: জাতিসংঘ

রিপোর্টারের নাম
প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৩৭ অপরাহ্ন
প্রতিশ্রুতি ভাঙছে তালেবান: জাতিসংঘ

নারীদের ঘরে থাকার নির্দেশ, কিশোরীদের স্কুলে যাওয়া বন্ধ করা এবং শত্রুদের বাড়িতে বাড়িতে তল্লাশিসহ নানা কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে তালেবানরা তাদের প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। খবর রয়টার্স।

সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার মিশেল ব্যাচলেট বলেন, গত মাসে ইসলামপন্থী এ গোষ্ঠী ক্ষমতা দখলের পর আফগানিস্তান নতুন ও বিপজ্জনক এক অধ্যায়ে প্রবেশ করেছে। নারী, জাতিগত ও ধর্মীয় সম্প্রদায়ের সদস্যরা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন আছেন।

সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় আফগান বিষয়ক সভায় মানবাধিকার বিষয়ক সংস্থাকে তিনি জানান, তালেবানরা নারীদের অধিকার নিয়ে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, গত তিন সপ্তাহ ধরে তার উল্টোটা করছে। দেশটিতে নারীদের সকল ক্ষেত্র থেকে আলাদা করছে তারা।

তালেবান সরকার গঠন নিয়ে হতাশা প্রকাশ করে মিশেল ব্যাচলেট বলেন, নারীদের অনুপস্থিতি এবং তাদের ওপর তালেবানদেড় আধিপত্য লক্ষ্য করা যাচ্ছে। কিছু জায়গায় ১২ বছরের বেশি মেয়েদের স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে, নারীদের ঘরে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এগুলো সেই ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত চলতে থাকা তালেবান শাসকের নিয়মের মতোই।

এ সময় সাবেক সরকারের কর্মচারী ও নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের ক্ষমা করে দেওয়া এবং ঘরে ঘরে তল্লাশি বন্ধ করাসহ তালেবানদের বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি ভাঙার ইঙ্গিত করেন ব্যাচলেট। তিনি আরও বলেন, এছাড়াও যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন কোম্পানি ও নিরাপত্তা বাহিনীতে যারা কাজ করেছেন তাদের বাড়িতেও তল্লাশির একাধিক খবর পেয়েছি। জাতিসংঘের কিছু কর্মী ক্রমবর্ধমান হুমকির বিষয়েও উদ্বেগ জানিয়েছেন।

আফগানিস্তানে মানবাধিকার পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ প্রক্রিয়ার আহ্বান জানিয়ে ব্যাচলেট বলেন, আমি আফগানিস্তান সংকটের ভয়াবহতা অনুযায়ী সাহসী ও জোরালো পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য এই কাউন্সিলের কাছে আমার আবেদনের পুনরাবৃত্তি করছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ