বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৮:২০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
পাপনের পরামর্শ কাজে লাগে, বললেন সাকিব শরণখোলায় বর্ষনে দূর্ভোগ কাটেনি মানুষের চাঁপাইনবাবগঞ্জে ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ শিবগঞ্জে সক্ষমতা বৃদ্ধিমূলক প্রশিক্ষণ শিবগঞ্জে ১২ অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধার বীরনিবাস নির্মাণের কাজের উদ্বোধন সুন্দরগঞ্জে ক্রেতা সেজে মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার সোনাগাজীতে তিন ফসলী জমি অধিগ্রহনের পাঁয়তারার প্রতিবাদ ভেঙে গেছে তিস্তার `রক্ষাকবচ`, ভয়াবহ বন্যার শংকা ফেতনা সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে: তথ্যমন্ত্রী সোনারগাঁয়ে মহাসড়কের পাশে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ হাতীবান্ধায় তিস্তার পানি বৃদ্ধি ফ্লাড-বাইপাস ভেঙ্গে ভাটিতে ভয়াবহ বন্যা বাঘাইছড়িতে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা:) উদ্যাপিত বুকে পাঁ দিয়ে যুবক কে নির্যাতন করলেন ইউপি চেয়ারম্যান উলিপুরে তিস্তা নদীতে ডুবে এক ব্যক্তি নিখোঁজ ফরিদপুরে পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ও শনাক্ত দুটোই কমেছে বকশীগঞ্জে স্কুলছাত্রী ধর্ষনের অভিযোগে একজন আটক কাল পূর্বাচলে নবনির্মিত প্রদর্শনী কেন্দ্র উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী মোংলায় ইতালীয় ধর্মযাজক ফাদার মারিনো রিগনের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধিতে সরকারের সিন্ডিকেট জড়িত: রিজভী

নিজের ভুল স্বীকার করলেন দেবলীনা

রিপোর্টারের নাম
প্রকাশের সময় : বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৮:২০ অপরাহ্ন
নিজের ভুল স্বীকার করলেন দেবলীনা

গৌরব চট্টোপাধ্যায়-দেবলীনা কুমার-এর বিয়ে। আশীর্বাদ দিতে উপস্থিত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার সেই ছবি ইনস্টাগ্রামে দিয়ে স্মৃতি ভাগ করে নিয়েছেন উত্তম কুমার-এর নাতবৌ। সেখানেই যত বিপত্তি। মুখ্যমন্ত্রীর পদমর্যাদা লিখতে গিয়ে দেবলীনা অসাবধানে লিখে ফেলেছিলেন, ‘হেড অফ দ্য স্টেট’। সেই অনুযায়ী তাঁর বক্তব্য, ‘রাজ্যের প্রধান যখন বিয়েতে আপনাকে আশীর্বাদ জানাতে আসেন।

এই ভুল নজরে আসতেই সংগে সংগে এক নেটাগরিক মন্তব্য করেন দেবলীনা’র পোস্টে। সোহম পাল নামের ওই ব্যক্তি অত্যন্ত বিনয়ের সংগে লেখেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী রাজ্য সরকার এবং শাসকদলের প্রধান। রাজ্যের প্রধান নন।

সোহম-এর মতো আরও এক নেটাগরিক তাঁর ভুল ধরিয়ে দিয়েছেন। অনেকে আবার কটাক্ষ করতেও ছাড়েনি দেবলীনাকে। তাঁরা মন্তব্যের ঘরে লেখেন, বিশিষ্ট জনদের পদমর্যাদা লেখার আগে একটু পড়াশোনা করে নেওয়া ভালো। কেউ লিখেছেন, নুসরাত জাহান-এর বিয়েতেও মুখ্যমন্ত্রী গিয়েছিলেন। আরেক জনের দাবি, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিয়েতে গিয়ে ‘পুরুতগিরি’ করছেন! এমন নজির দেশের অন্যান্য কোনও রাজ্যে নেই। সত্যিই ‘এগিয়ে বাংলা’!

যদিও কিছুক্ষণের মধ্যেই এসব মন্তব্য নজরে আসে দেবলীনা’র। অভিনেত্রী নিজের ভুল প্রকাশ্যেই স্বীকার করে নেন। শুধরেও নেন তখনই।


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: