মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
অবশেষে এসপি’র হস্তক্ষেপে থানায় মামলা! যশোরে চোরাই ইজিবাইকসহ আটক ৪ স্বাধীনতাবিরোধী চক্রই দেশের সাম্প্রদায়িক হামলার জন্য দায়ী: ইনু মানিকগঞ্জে জাতীয় স্যানিটেশন মাস ও বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস উদযাপন চকরিয়ায় পরোয়ানাভুক্ত আসামী গ্রেফতার ডিমলায় নিখোঁজের পাঁচদিন পর তিস্তা নদী থেকে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার সাম্প্রদায়িক হামলা চালিয়ে রাজনৈতিক ফায়দার চেষ্টা বিএনপি’রঃ নানক বাংলাদেশকে ৫০০ মিলিয়ন ইয়েন অনুদান দিচ্ছে জাপান এ মাসে প্রবাসী আয় ১০০ কোটি ডলার ছাড়ালো জয় বাংলা ইয়ুথ এ্যাওয়ার্ডের আবেদনের সময় বাড়লো ভোলাহাটে ভেজাল আইসক্রীম কারখানায় র‌্যাবের অভিযান ৫৯ বিজিবি’র শিয়ালমারা সীমান্তে অভিযান ॥ ফেন্সিডিলসহ আটক ১ ২৪ ঘন্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে নতুন ১৯০ জন রোগী ভর্তি অপারেশন শেষে আইসিইউতে খালেদা জিয়া উমরাহ পালনে আর ১৪ দিনের অপেক্ষা নয় ভারতের কেরালা রাজ্যে বন্যায় প্রাণহানিতে মোমেনের শোক বহিস্কৃত নেতাকে মনোনয়ন দেয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন বিদ্যুৎ সম্পর্কিত সব মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির সুপারিশ রৌমারীতে সার সংকটে কৃষক বিপাকে মেলান্দহে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত-১, আহত ২

দ. কোরিয়ার কোন গালিও দেয়া চলবে না উত্তর কোরিয়ায়

রিপোর্টারের নাম
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৩৯ পূর্বাহ্ন
দ. কোরিয়ার কোন গালিও দেয়া চলবে না উত্তর কোরিয়ায়

দক্ষিণ কোরিয়ার কোনো গালি উত্তর কোরিয়ায় চলবে না বলে তরুণদেরকে সতর্ক করেছে রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম। সেইসাথে তাদেরকে উত্তর কোরিয়ার মানসম্পন্ন ভাষাতেই কথা বলতে হবে বলে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এছাড়া উত্তর কোরিয়ার সরকারি পত্রিকা ‘রডং সিনমন’ এ বলা হয়, দক্ষিণ কোরিয়ার ফ্যাশন, সঙ্গীত এমনকী চুলের স্টাইলও উত্তর কোরিয়ায় কেউ অনুসরণ করতে পারবে না।

দেশটির তরুণদের সংস্কৃতিগত ভাবে বিদেশি প্রভাব থেকে মুক্ত রাখতে উত্তর কোরিয়ায় একটি বিশেষ কঠোর আইন পাস হয়েছে। এই আইনের আওতায় এসব সতর্কবার্তা রাষ্ট্রীয় সংবাদপত্র ও টেলিভিশনে ঘোষণা করা হচ্ছে। এই আইন ভঙ্গ করা হলে জেল থেকে শুরু করে মৃত্যুদণ্ড পর্যন্ত হতে পারে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

রডং সিনমন পত্রিকার এক নিবন্ধে বলা হয়েছে, রঙচঙে সাইনবোর্ডের তল দিয়ে দেশে আদর্শিক এবং সাংস্কৃতিক অনুপ্রবেশ ঘটে যাওয়াটা অস্ত্রধারী শত্রুর চেয়েও বেশি বিপজ্জনক। এক্ষেত্রে দক্ষিণ কোরিয়ার পপ সংস্কৃতি অনুসরণ পরবর্তী হাজার বছর প্রভাব ফেলতে পারে।

বিদেশি প্রভাবকে উত্তর কোরিয়ার কমিউনিস্ট শাসকগোষ্ঠী ও এর সর্বোচ্চ নেতা কিম জং-উনের ক্ষমতা ধরে রাখার ক্ষেত্রে হুমকি হিসাবেই দেখা হয়। তাই নতুন আইন অনুযায়ী, উত্তর কোরিয়ায় কেউ দক্ষিণ কোরিয়া, যুক্তরাষ্ট্র কিংবা জাপানের কোনো ভিডিওর বড় চালানসহ ধরা পড়লে তাকে মৃত্যুদণ্ডের মুখোমুখি হতে হবে। কেউ দেখতে গিয়ে ধরা পড়লে হতে পারে ১৫ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড।

তবে এতবড় ঝুঁকি থাকার পরও উত্তর কোরিয়ায় বিদেশি প্রভাব বেড়েই চলেছে। উত্তর কোরিয়া ছেড়ে পালিয়ে চলে যাওয়া কেউ কেউ বলেছেন, তাদের পালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে দক্ষিণ কোরিয়ার চলচ্চিত্র দেখার একটা ভূমিকা আছে।


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: