মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৪২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
গৌরীপুরে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শেখ রাসেল দিবস পালিত হবিগঞ্জে শেখ রাসেল-এর ৫৮তম জন্মদিন উদযাপন সাম্প্রদায়িক অপতৎপরতা রুখতে মাঠে নামছে আ. লীগ ফেনীর নতুন পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মামুন হিজবুল্লাহর ভয়ে যুদ্ধে জড়াবে না ইসরায়েল পদোন্নতি পেলেন ডিএমপি কমিশনার ও র‍্যাব মহাপরিচালক শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন উদযাপিত করোনায় কমেছে মৃত্যু, বেড়েছে শনাক্ত ২১ অক্টোবর শুরু হচ্ছে সাত কলেজের সশরীরে ক্লাস ‘কুমিল্লার ঘটনা সাজানো, সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে পীরগঞ্জে হামলা’ ‘বুলেটের আঘাতে যেন আর কোন শিশুর প্রাণ না যায়’ জাপানে শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন উদযাপিত কেরালায় ভয়াবহ বন্যায় মৃত্যু বাড়ছে দলের সংগে পাপনের জরুরি সভা, ঝাড়লেন রাগ রংপুর-ফেনীর এসপিসহ কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তা বদলি কিউকমের আরজে নিরব ও রিপন ফের রিমান্ডে সরকারকে প্রশ্নবিদ্ধ করতেই পীরগঞ্জে হামলা : তথ্যমন্ত্রী ‘শেখ রাসেল স্বর্ণ পদক’ বিতরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী নেই কোনো নদী শাসন ব্যবস্থা বেতন আর মেয়াদ দুটোই বাড়তে যাচ্ছে ডোমিঙ্গোর

দুই দশকে ক্রমান্বয়ে বড় হয়েছে আফগানিস্তানের অর্থনীতি

রিপোর্টারের নাম
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৪২ পূর্বাহ্ন
দুই দশকে ক্রমান্বয়ে বড় হয়েছে আফগানিস্তানের অর্থনীতি

একবিংশ শতাব্দীর দুই দশকে ক্রমান্বয়ে বড় হয়েছে আফগানিস্তানের অর্থনীতি। প্রায় ৩ গুণ প্রবৃদ্ধি হয়েছে মোট জাতীয় উৎপাদন- জিডিপিতে। বেড়েছে বিদেশি বিনিয়োগ। কূটনৈতিক ও রাজনৈতিক পদক্ষেপে সফলতা আসে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে। গেলো দুই দশকে এগিয়ে যাওয়া এই অর্থনীতির গতি ধীর হওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে তালেবান আগ্রাসনে।

২০০১ সালে তালেবান সরকারের বিদায়ের পর আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের দ্বার উন্মোচন হয় আফগানিস্তানের। দেশটিতে গড়ে উঠে একের পর এক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান।

কার্পেট, তুলা, অ্যালকোহলমুক্ত পানীয়, বিভিন্ন ধরনের ফল ও খাদ্য শস্যের রপ্তানি ধীরে ধীরে বাড়াতে থাকে কৃষি প্রধান অর্থনীতির দেশটি। বিপরীতে বিভিন্ন দেশ থেকে আমদানি করতে থাকে গম, পিট কয়লা, তৈরি পোশাক ও জ্বালানি তেল।

গণতান্ত্রিক দেশের তকমা লাগিয়ে গেলো দুই দশকে বিদেশি বিনিয়োগ বাড়ায় আফগানিস্তান। দেশটির অবকাঠামো উন্নয়ন শুধু ভারতই বিনিয়োগ করে অন্তত ৩০০ কোটি ডলার। ইউরোপ ও মধ্যপ্রাচ্যের সঙ্গে বাণিজ্য সহজ করতে বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভে আফগানিস্তানকে যুক্ত করে চীন।

ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে দেশটির মোট জাতীয় উৎপাদন। ২০০২ সালে আফগানিস্তানের ৪০৫ কোটি ৫০ লাখ ডলারের জিডিপি ২০০৮ সালে দাঁড়ায় ১ হাজার ১০ কোটি ৯০ লাখ ডলারে। ২০১২ সালে যা ছাড়িয়ে যায় ২ হাজার কোটি ডলার।

জিডিপি প্রবৃদ্ধির চিত্র উল্টে যায় ২০১৪ সালে আশরাফ গণি ক্ষমতা গ্রহণের পর। ২০১৩ সালে সর্বোচ্চ ২ হাজার ৫৬ কোটি ডলারের জিডিপি তিন বছর পর নেমে যায় ১ হাজার ৮০০ ডলারে। পরবর্তীতে ইতিবাচক ধারা দেখা গেলেও অতিক্রম করেনি ২ হাজার কোটি ডলারের ঘর।

চলতি বছরই আফগানিস্তান করোনার ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছিলো বিশ্বব্যাংক। তবে দুই দশক পর আবারও রাষ্ট্রক্ষমতায় তালেবান, শঙ্কা দেখা দিয়েছে দেশটির অর্থনৈতিক অগ্রগতিতে।


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: