রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০১:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিশু কন্যাকে ধর্ষনের অভিযোগে কিশোর আটক চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা আ.লীগ থেকে লিটন বহিষ্কার গোয়ালন্দ উপজেলার ১ঘণ্টার জন্য ইউএনও দশম শ্রেণির ছাত্রী বাবলী জয় দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু অস্ট্রেলিয়ার জয় দিয়ে সুপার টুয়েলভ শুরু করতে চায় বাংলাদেশ ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সরাসরি খেলবে বাংলাদেশ অনেকবার মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসেছি: কঙ্গনা সাম্প্রদায়িক হামলার সবাইকে চিহ্নিত করেছি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সোনারগাঁয়ে জাতীয়পার্টির নেতৃবৃন্দ আওয়ামীলীগে যোগদান রোববার পায়রা সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী ডেঙ্গুতে মৃত্যু ২, হাসপাতালে ১৮৯ মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলে সৈন্য সমাবেশ, গণহত্যার শঙ্কা জাতিসংঘের হাওর বাঁচাও আন্দোলনের জেলা সম্মেলন অনুষ্ঠিত ফরিদপুরে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে নিহত-১,আহত-৩০ সরকার হিন্দু সম্প্রদায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়িয়েছে: স্পিকার রোহিঙ্গাদের চুলের মুঠি ধরে ওপারে পাঠাতে হবে: শুভেন্দু মামলার জট কমাতে ‘মধ্যস্থতা’ প্রক্রিয়া বড় ভূমিকা রাখতে পারে: প্রধান বিচারপতি গাইবান্ধায় নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম লাগামহীন সাদুল্লাপুরে পরিত্যক্ত কলাগাছে ১০টি মোচা উঠানের রিংপার্টের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

ঢাকা ব্যাংকের ভল্ট থেকে টাকা উধাও : ২ কর্মকর্তা কারাগারে

রিপোর্টারের নাম
প্রকাশের সময় : রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০১:৩৯ পূর্বাহ্ন
ঢাকা ব্যাংকের ভল্ট থেকে টাকা উধাও : ২ কর্মকর্তা কারাগারে

ঢাকা ব্যাংকের বংশাল শাখার ভল্ট থেকে তিন কোটি ৭৭ লাখ ৬৬ হাজার টাকা উধাও হওয়ার ঘটনায় আটক ভল্টের দায়িত্বে থাকা দুই কর্মকর্তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
তারা হলেন, ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার ক্যাশ ইনচার্জ রিফাতুল হক ও ম্যানেজার অপারেশন এমরান আহমেদ।
আজ শুক্রবার তাদের ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এরপর বংশাল থানার সাব-ইন্সপেক্টর প্রদীপ কুমার সরকার তাদের কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম মাসুদুর রহমান তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।
আবেদনে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উল্লেখ্য করেন, আসামিরা ব্যাংকের ভল্টের টাকার দায়িত্বে ছিলেন। ভল্টের চাবি তাদের কাছেই ছিল। বৃহস্পতিবার ব্যাংকের অডিট টিম অডিট করার সময় ব্যাংকের ভল্টে থাকা ৩ কোটি ৭৭ লাখ ৬৬ হাজার টাকার গড়মিল পান। ব্যাংকের ম্যানেজার আবু বক্কর সিদ্দিকের কাছে অডিট টিম টাকা গড়মিলের স্টেটমেন্ট দাখিল করে। তখন আবু বক্কর সিদ্দিক অডিট টিমের স্টেটমেন্টের ভিত্তিতে আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন। আসামিরা তাৎক্ষণিকভাবে টাকা আত্মসাতের কথা স্বীকার করেন।
আবেদনে আরও বলা হয়, ব্যাংকের ম্যানেজার কর্তৃপক্ষের সাথে আলাপ আলোচনা করে অডিট টিমের সহায়তায় আসামিদের আটক করে। আসামিদের থানায় হাজির করে আবু বক্কর সিদ্দিক বংশাল থানার অফিসার ইনচার্জ বরাবর অভিযোগ দায়ের করেন। অফিসার ইনচার্জ অভিযোগটি পর্যালোচনা করে দেখতে পান ঘটনাটি পেনাল কোডের ৪০৯ ধারার অপরাধ। যার তদন্ত ক্ষমতা দুর্নীতি দমন কমিশনের শিডিউলভূক্ত। দুদক তদন্তের ব্যবস্থা করবে।
এরআগে টাকা উধাওয়ের ঘটনায় বৃহস্পতিবার ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ভল্টের দায়িত্বে থাকা দুই কর্মকর্তাকে পুলিশে সোপর্দ করে।


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: