শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০২:২২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ঘানায় ভয়াবহ বিস্ফোরনে নিহত ১৭ দুই সপ্তাহের জন্য সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিরামপুরে মাদক মামলায় নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য গ্রেফতার দাঁড়িয়ে থাকা ট্রলিতে ধাক্কা লেগে মোটরসাইকেল আরোহী নিহত নীলফামারীতে সড়ক দূর্ঘটনায় নারী শ্রমিক নিহত পটুয়াখালীতে আনসার-ভিডিপি সদস্যদের বাই-সাইকেল বিতরন গৌরীপুরে বিধু ভূষণ দাস স্মরনে আওয়ামী লীগের শোকসভা অনুষ্ঠিত ব্যাংকের সর্বনিম্ন বেতন নির্ধারণ করে সার্কুলার জারি ইভ্যালি ইস্যুঃ হাইকোর্টে তাহসানের আগাম জামিন মানিকগঞ্জে বড়ভাইকে হত্যার দায়ে ছোট ভাইয়ের মৃত্যুদন্ডাদেশ ফেনীতে প্রতারণায় সহায়তার অভিযোগে ৩ জনের কারাদন্ড জোর করে ওষুধ খাইয়ে গর্ভের সন্তান নষ্ট, আদালতে স্বীকারোক্তি মেহেরপুরে সাজাপ্রাপ্ত দুই পলাতক আসামি আটক এখন থেকে রাতেও নৌযান চলবে ‘বঙ্গবন্ধু মোংলা-ঘাষিয়াখালী ক্যানেলে’ মেসিকে বাদ দিয়েই আর্জেন্টিনা দল ঘোষণা আফগানিস্তানে চাকরি হারিয়েছে পাঁচ লাখের বেশি মানুষ আইপি টিভি-ইউটিউবে সংবাদ প্রচার নীতিমালা বিরোধী: তথ্যমন্ত্রী শেরপুরে রাস্তার পাশে বীর মুক্তিযোদ্ধার লাশ! পটুয়াখালীর দুমকিতে মসজিদ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন বোনকে উত্যক্তের প্রতিবাদ করায়, ভাইয়ের পা ভেঙে দিল বখাটে

ডিআরএস নিয়ে ক্ষুব্ধ বিরাট কোহলি

রিপোর্টারের নাম
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০২:২২ অপরাহ্ন

কেপটাউনের নিউল্যান্ডসে তৃতীয় ও শেষ টেস্টের ৩য় দিনে ডিআরএস সিদ্ধান্তের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা। প্রোটিয়া ব্যাটার ডিন এলগার রিভিউ নিয়ে বেঁচে যাওয়ায় সরাসরি ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা। তারা তো দক্ষিণ আফ্রিকার সম্প্রচার প্রতিষ্ঠান সুপারস্পোর্টকেই দায়ী করেছেন পুরো ঘটনার জন্য!

ঘটনাটি ঘটেছে, গতকাল ২১তম ওভারে। ২১২ রানের লক্ষ্যে খেলতে নামা দক্ষিণ আফ্রিকার স্কোর তখন ১ উইকেটে ৬০। অশ্বিনের একটি ওভারে বল সরাসরি গিয়ে আঘাত হানে এলগারের প্যাডে। ভারত আবেদন করলে সরাসরি আঙুল তুলে দেন আম্পায়ার মারাইস এরাসমাস। অবশ্য বলের গতিপথ যেমনটা ছিল, তাতে স্পষ্ট এলবিডাব্লিউ মনে হচ্ছিল তখন। কিন্তু রিভিউতে দেখা গেছে বল বাড়তি বাউন্সে গতিপথ পাল্টে চলে যাচ্ছে স্টাম্পের ওপর দিয়ে! তাতে বেঁচে যান এলগার। পরে অবশ্য দিনের শেষ বলে ঠিকই সাজঘরে ফিরতে হয়েছে প্রোটিয়া ব্যাটারকে।

এখানে একটা বিষয় উল্লেখযোগ্য বলের গতিপথ বা ট্র্যাকিং প্রযুক্তি সরবরাহ করে থাকে হক আই নামের একটি স্বাধীন সংস্থা। যাবতীয় তথ্য-উপাত্ত তারাই স্বাগতিক সম্প্রচারকারী প্রতিষ্ঠানকে সরবরাহ করে। এক্ষেত্রে সম্প্রচার প্রতিষ্ঠান ছিল সুপারস্পোর্ট।

রিভিউতে হতাশ হয়ে স্টাম্প মাইকে ক্ষোভ উগড়ে দিতে দেখা যায় ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে। তিনি বলে বসেন, ‘নিজের দলের দিকে নজর দাও, যখন ওরা বল উজ্জল করার চেষ্টায় থাকে। প্রতিপক্ষের দিকে নজর না দিলেও চলবে। সব সময় শুধু প্রতিপক্ষকে ধরার চেষ্টা।’

ক্ষোভ উগড়ে দেওয়াদের মাঝে শুধু কোহলিই ছিলেন না। ভাইস ক্যাপ্টেন লোকেশ রাহুলও তাতে যোগ দেন। কোহলির পর তাকেও বলতে শোনা যায়, ‘পুরো দেশটা ১১ জনের বিপক্ষে খেলছে।’ এর পর রবিচন্দ্রন অশ্বিন সম্প্রচার প্রতিষ্ঠানকে দোষারোপ করে বলেছেন, ‘সুপারস্পোর্ট, জয়ের জন্য তোমাদের ভালো কোনও পথ অবলম্বন করা উচিত।’

অবশ্য রিভিউয়ের এই হাল দেখে যে ভারতীয় ক্রিকেটাররাই মন্তব্য করেছেন এমন নয়। বিস্ময় প্রকাশ করতে দেখা যায় অনফিল্ড আম্পায়ার এরাসমাসকেই। অবিশ্বাসের ভঙ্গিতে মাথা নেড়ে বলেছেন, ‘এটা তো অসম্ভব।’

এই ডিআরএস প্রসঙ্গ উঠে আসে দিনের শেষ ভাগে সংবাদ সম্মেলনে। প্রোটিয়া পেসার লুঙ্গি এনগিদিকে প্রশ্ন করা হয়েছিল যে, ডিআরএসে তার আস্থা আছে কিনা। জবাবে বলেছেন, ‘হ্যাঁ, অবশ্যই। আমরা দেখেছি পৃথিবীর সবখানেই এটা বিভিন্ন সময় ব্যবহৃত হয়ে আসছে। পদ্ধতিটা যেহেতু প্রয়োগের জন্য রাখা, আমরা ক্রিকেটাররাও সেটা ব্যবহার করি।’

তবে ভারতীয় দলের পক্ষ থেকে সন্তোষজনক উত্তর পাওয়া যায়নি। দলটির বোলিং কোচ পরশ মামব্রে বলেছেন, ‘আমরা যেমন দেখেছি, আপনারও দেখেছেন। বিষয়টা ম্যাচ রেফারির ওপর ছেড়ে দিচ্ছি। এখন কোনও মন্তব্য করতে রাজি নই।’


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: