শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০১:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশের ম্যাচ সূচি ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ে এগোল বাংলাদেশ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সুপার টুয়েলভে স্কটল্যান্ড কক্সবাজারে আটক ব্যক্তিই ইকবাল হোসেনঃ এসপি উখিয়ায় রোহিঙ্গাদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত বেড়ে ৭ অসুস্থ গাফফার চৌধুরীকে ফোন করে খোঁজ-খবর নিলেন রাষ্ট্রপতি স্কটল্যান্ড হারলে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ কক্ষপথে স্যাটেলাইট স্থাপনে ব্যর্থ হয়েছে দ. কোরিয়া স্কুল শিক্ষার্থীদের টিকা এ মাসেই: স্বাস্থ্যমন্ত্রী বন্ধ হচ্ছে না বৈধ-অবৈধ মোবাইল ফোন মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ ২১৩ অভিবাসী আটক হিন্দুদের ওপর হামলা দেশের চেতনার বেদীমূলে হামলা : তথ্যমন্ত্রী জানুয়ারিতে বাড়তে পারে ক্লাসের সংখ্যা: শিক্ষামন্ত্রী ব্যাট-বলের ভারসাম্যে খুশী মাহমুদুল্লাহ ধামইরহাটে উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনে পুনরায় দেলদার হোসেন সভাপতি ও সম্পাদক শহীদুল ইসলাম বিশাল জয়ে বিশ্বকাপের মূল পর্বে টাইগাররা ‘বিএনপি নেতারা রাজনীতি নয়, অফিসিয়াল দায়িত্ব পালন করছেন’ গোয়ালন্দ উপজেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি গঠন মালিঙ্গাকে ছাড়িয়ে আফ্রিদিকে ধরে ফেললেন সাকিব রাডার কিনতে ফ্রান্সের সঙ্গে চুক্তি সই

চিকিৎসক শূণ্য শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

শরণখোলা প্রতিনিধি:
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০১:৩৪ অপরাহ্ন

চিকিৎসক শূণ্য হয়ে পড়েছে বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার ৫০ শয্যাবিশিষ্ট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি। চার জন এরমবিবিএস চিকিৎসকের তিন জনই পারিবারিক সমস্যা ও অসুস্থতাজনিত কারণে ছুটিতে রয়েছেন। একমাত্র উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ছাড়া তিনদিন ধরে কোনো এমবিবিএস চিকিৎসক নেই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটিতে। দুই জন উপ-সহকারী কমিউনিটি চিকিৎসক দেখছেন রোগী। এ অবস্থায় পার্শ্ববর্তী মোরেলগঞ্জ উপজেলা থেকে আজ (বুধবার) ধার করে আনা হয়েছে একজন চিকিৎসক। বর্তমানে চরম অনিশ্চয়তায় পড়েছে উপজেলার দেড় লক্ষাধিক মানুষের স্বাস্থ্যসেবা।
এছাড়া, জরুরি বিভাগের দায়িত্বে রয়েছেন উপ-সহকারী কমিউনিটি চিকিৎসক বিশ্বজিত মজুমদার। মারামারি, দুর্ঘটনায় আহত ও অন্যান্য মিলিয়ে সেখানে রোগীতে ঠাসা। একা এতো রোগীর চাপ সামলাতে হিমসিম খাচ্ছেন বলে জানান জরুরি বিভাগের এই চিকিৎসক।
এব্যাপারে, শরণখোলা উপজেলা হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি বাবুল দাস বলেন, শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি সব সময়ই চিকিৎসক বৈষম্যের শিকার। এখানে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকতো থাকেই না। এমবিবিএস চিকিৎসকও থাকেন হাতে গোণা দু-চারজন। কোনো মানুষ সঠিক চিকিৎসা পাচ্ছে না। বর্তমান একজন চিকিৎসকও না থাকায় পরিস্থিতি আরো চরম পর্যায় পৌঁছেছে। এতে সীমাহীন দুর্ভোগে পড়েছে সারধারণ রোগীরা। চলমান সংকট সমাধানে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানান এলাকাবাসী।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, বিভিন্ন সমস্যায় তিন জন ডাক্তার ছুটিতে রয়েছেন। রোগীর প্রচন্ড চাপ। এ অবস্থায় প্রশাসনিক দায়িত্ব পালনের ফঁাকে আমি নিজে গিয়েও আউট ডোরে রোগী দেখছি। বিষয়টি সিভিল সার্জন স্যারকে জানানোর পর আপাতত মোরেলগঞ্জ থেকে একজন ডাক্তার পাঠিয়েছেন। এছাড়া, রামপাল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে গোলাম মোকদারি খান নামে একজন ডাক্তার ডেপুটেশনে এখানে পাঠানোর কথা।
বাগেরহাটের সিভিল সার্জন ডা. জালাল উদ্দিন বলেন, শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সমস্যার বিষয়টি আমি জানি। ইতোমধ্যে একজন চিকিৎসক সেখানে পদায়ন করা হয়েছে। যারা ছুটিতে রয়েছেন তাদেরকে দ্রুত ফিরে আসার জন্য বলা হয়েছে। চলমান এই সংকট সমাধানের চেষ্টা চলছে।


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: