বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:৪৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
আগামী তিন দিন বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে- আবহাওয়া অধিদপ্তর কমলো এলপি গ্যাসের দাম অভিবাসীর সংখ্যায় বিশ্বে বাংলাদেশ ষষ্ঠ চাঁপাইনবাবগঞ্জে তথ্য অধিকারের গুরুত্ব নিয়ে সংলাপ অনুষ্ঠিত অন্ত:সত্তা স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদন্ড বিশ্বকাপ জয়ীর নেতৃত্বে যুব বিশ্বকাপে খেলবে বাংলাদেশ বহুতল ভবন থেকে পড়ে নির্মাণ শ্রমিকের মুত্যু যশোরে বোর্ডে এইচএসসি পরীক্ষার্থী ১ লাখ ৩১ হাজার যশোরে বাস ও মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ১ আফ্রিকাফেরত হোটেল থেকে বেরোলে মালিককে জরিমানা চাঁপাইনবাবগঞ্জে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অনুপস্থিত ৬১ মির্জাগঞ্জে পরিক্ষার নামে অর্থ উত্তোলনের অভিযোগ অভয়নগরে গাঁজা ও ইয়াবাসহ মাদক কারবারি গ্রেফতার বাসে দুই যাত্রী অচেতন, ঢামেকে ভর্তি মাদারীপুরে ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের আওতায় অবহিতকরণ কমর্শালা গ্রাম পুলিশের মাঝে বাই সাইকেল ও কম্বল বিতরন ইমন গাছীর ফাঁসির রায় পূনঃবিবেচনার দাবিতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন ওটিটি প্লাটফর্মে সংবাদ-অনুষ্ঠান প্রচার হলে ব্যবস্থা: তথ্যমন্ত্রী উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে নতুন যুদ্ধ পরিকল্পনা মালয়েশিয়ায় করোনায় আরো ৫,৪৩৯ জন আক্রান্ত, ৪৯ জনের মৃত্যু

চা-সিঙাড়া বেচে কোটি টাকার সম্পত্তি

রিপোর্টারের নাম
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:৪৯ অপরাহ্ন
চা-সিঙাড়া বেচে কোটি টাকার সম্পত্তি

রাস্তায় চাট-সিঙারা-কচুরি-চা বিক্রি করেন এমন প্রায় ২৫০ জন কোটিপতির খোঁজ মিলেছে ভারতের কানপুরে। তদন্তকারীরা বলছেন, বছরের পর বছর ধরে খুচরো বিক্রির সংগে যুক্ত ওই সমস্ত কোটিপতিরা। কোনও রেজিস্ট্রেশন নেই। তাই তাঁদের দিতে হয় না আয়কর। এমনকী ফুড সেফটি অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্স অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার কোনও সার্টিফিকেট ছাড়াই এরা দিনের পর দিন খাবার বিক্রি করে চলেছেন।

আয়কর দফতরের তদন্তে উঠে এসেছে, এদের কেউ চাট বিক্রি করেন। কেউ তেলেভাজা-কচুরি। কেউ বা চা-সিঙাড়া। খালি চোখে দেখলে মনে হবে অনটনে চলে তাঁদের সংসার। মাসে রোজগার হয়তো যৎ সামান্য। অথচ উত্তরপ্রদেশের কানপুরে এই ধরনের খুচরো পেশার সংগে যুক্ত ২৫০ জনের ব্যাংক ব্যালেন্স কোটি কোটি টাকা। কানপুরে সামান্য ছাঁট মালের ব্যবসার সংগে যুক্ত এক ব্যক্তির কাছে তিনটি দামি গাড়ি রয়েছে। যা কিনতে কালঘাম ছুটে যাবে সাধারণ মানুষের।

তদন্তে দেখা গিয়েছে, বছরে এক টাকাও কর দেন না ওই সমস্ত খুচরো ব্যবসায়ীরা। অথচ কেউ কেউ চার বছরে কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি কিনেছেন। একজন পান বিক্রেতা নাকি অতিমারির সময়ে প্রায় ৫ কোটি টাকার সম্পত্তি কিনেছেন।

দিনের পর দির কীভাবে চলছিলো এই দুর্নীতি? জানা গেছে, সরকারের কর ফাঁকি দিকে কেউ কো-অপারেটিভ ব্যাংকে রোজগারের টাকা গচ্ছিত রেখেছেন। কেউ বা পরিবারের সদস্যদের নামে বিপুল সম্পত্তি কিনে রেখেছেন।

এর আগে ২০১৯-এ এই ধরনের ঘটনা ধরা পড়েছিলো আলিগড়ে। তবে এত বড় মাপের দুর্নীতি এই প্রথম। সূত্র: জি২৪ঘণ্টা


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: