সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ১০:০৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মুসলিম হওয়ায় মন্ত্রিত্ব ‘হারান’ ব্রিটিশ নারী এমপি অর্ধেক জনবলে চলবে সরকারি-বেসরকারি অফিস, প্রজ্ঞাপন জারি চিত্রনায়িকা শাবনাজ করোনায় আক্রান্ত এরদোগানকে অপমান করার অভিযোগে তুর্কি সাংবাদিক কারাগারে কুড়িগ্রাম-লালমনিরহাট সীমান্তে জব্দকৃত মাদক ধ্বংস ফেনী-১ আসনের সংসদ সদস্য শিরীন আখতার করোনায় আক্রান্ত যশোরে ট্রাক চোরকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ মানিকগঞ্জে এ,এম সায়েদুর রহমান স্মৃতি টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট শুরু ফেনীতে করোনা উপসর্গে নারীর মৃত্যু মোংলা বন্দর জেটিতে রাবার ফেন্ডার স্থাপন চুক্তি স্বাক্ষর পীরগঞ্জে কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হিলিতে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় পথচারীকে জরিমানা মেহেরপুরে করোনা আক্রান্ত ১০ জন চাঁপাইনবাবগঞ্জে মাদক মামলায় যাবজ্জীবন চাঁদপুরের মেঘনা নদীতে ব্যবসায়ীদের দুটি ট্রলারে ডাকাতি হাকিমপুরে নাগরিক কমিটি গঠন যশোরে ২৪ ঘন্টায় ১ শ ৯৪ জন করোনায় আক্রান্ত সোনাগাজীতে টিকা নিতে আসা শিক্ষার্থীদের মাঝে ছাত্রলীগের পানি বিতরণ পুতিনকে নিয়ে মন্তব্য, পদত্যাগ করেছেন জার্মান নৌবাহিনী প্রধান করোনা টিকা প্রতি বছর দেওয়ার নিয়ম চান ফাইজার সিইও

কুন্দুজে মসজিদে হামলার দায় স্বীকার আইএসের

রিপোর্টারের নাম
প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ১০:০৭ পূর্বাহ্ন
কুন্দুজে মসজিদে হামলার দায় স্বীকার আইএসের
কুন্দুজে শিয়া মসজিদে হামলা

আফগানিস্তানের কুন্দুজ শহরে একটি শিয়া মসজিদে হামলার দায় স্বীকার করেছে আইএস খোরাসান।

শুক্রবার (৮ অক্টোবর) রাতে টেলিগ্রামে এক বিবৃতির মাধ্যমে এর দায় স্বীকার করে আইএসকে। হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে অন্তত ৫০, আহত শতাধিক। এদিন জুমার নামাজের সময় সাইদ আবাদ মসজিদে এ হামলা হয়। এসময় মসজিদে ৩ শতাধিক মুসল্লি নামাজ পড়ছিলেন।

শুক্রবার টেলিগ্রাম চ্যানেলে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে জিহাদি গোষ্ঠীটি বলেছে, মসজিদের ভেতরে জড়ো হওয়া শিয়া মুসলমানদের ভিড়ের মধ্যে একজন আইএস আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ করে। খবর এএফপির।

তবে দ্বিতীয় বিবৃতিতে আইএসকে বলছে, ‌’হামলার অপরাধী একজন উইঘুর মুসলিম।’ যাদেরকে তালেবান যোদ্ধারা আফগানিস্তান থেকে বিতারিত করে দিয়েছিল।

জাতিসংঘের হিসেব মতে, নিহতের সংখ্যা ৫০ হলেও কুন্দুজের পুলিশ প্রধান বলছে, এ সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়েছে।

কুন্দুজ আফগানিস্তান ও তাজিকিস্তানের মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক স্থান। তালেবান ক্ষমতা দখলের পর এই স্থানটি ভয়াবহ সংঘাতপূর্ণ এলাকায় পরিণত হয়েছে। এখানকার শিয়া মুসলমানরা প্রায় সুন্নি চরমপন্থিদের হিংসাত্মক হামলা শিকার হন। হাসপাতাল, মসজিদ, সভা সমাবেশ ও যানবাহনসহ বিভিন্ন স্থানে হামলা চালিয়ে তাদের হত্যা করা হয়।

এর কয়েকদিন আগে কাবুলের একটি মসজিদে হামলায় বেশ কয়েকজন নিহত হওয়ার পর আবার এই সহিংসতার ঘটনা ঘটল।


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: