বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৫৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
হাতীবান্ধায় তিস্তার পানি বৃদ্ধি ফ্লাড-বাইপাস ভেঙ্গে ভাটিতে ভয়াবহ বন্যা বাঘাইছড়িতে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা:) উদ্যাপিত বুকে পাঁ দিয়ে যুবক কে নির্যাতন করলেন ইউপি চেয়ারম্যান উলিপুরে তিস্তা নদীতে ডুবে এক ব্যক্তি নিখোঁজ ফরিদপুরে পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ও শনাক্ত দুটোই কমেছে বকশীগঞ্জে স্কুলছাত্রী ধর্ষনের অভিযোগে একজন আটক কাল পূর্বাচলে নবনির্মিত প্রদর্শনী কেন্দ্র উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী মোংলায় ইতালীয় ধর্মযাজক ফাদার মারিনো রিগনের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধিতে সরকারের সিন্ডিকেট জড়িত: রিজভী মোংলায় নিজ কন্যা শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক পিতা গ্রেফতার মাইক্রোবাস ও ট্রাকের মুখোমুখী সংঘর্ষে ৫ জন আহত ‘রাজনৈতিক স্বার্থ হাসিলেই ধর্মকে ব্যবহার করে বিভাজন তৈরি’ টিকা নিবন্ধনে বয়সসীমা কমিয়ে ১৮ বছর নির্ধারণ মতলবে পানিতে ডুুবে একই পরিবারের দুই শিশুর মৃত্যু তিস্তা ব্যারেজের ৫২টি গেট খুলে দিলো ভারত, রেড অ্যালার্ট জারি আখাউড়ায় নানা আয়োজনে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী উদযাপিত দামেস্কে সেনা বাসে বোমা হামলায় নিহত ১৩ সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা বাধিয়ে সরকার ফায়দা লুটতে চায়- আ স ম আবদুর রব বাংলাদেশকে ২১৪ কোটি টাকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র

কাশিয়ানীতে অযোগ্য ইমামকে নামাজ না পড়াতে আইনি নোটিশ

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশের সময় : বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৫৯ অপরাহ্ন
কাশিয়ানীতে অযোগ্য ইমামকে নামাজ না পড়াতে আইনি নোটিশ

প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা ও যোগ্যতা না থাকা সত্ত্বে প্রভাব খাটিয়ে মসজিদে ইমামতি করার অভিযোগ উঠেছে জেলার কাশিয়ানী উপজেলার হিরন্যকান্দি গ্রামের উত্তরপাড়া মসজিদের ইমাম সৈয়দ ইকরাম আলী মুন্সীর বিরুদ্ধে। গ্রামের আলোচিত ওই ইমামকে সংশ্লিষ্ট মসজিদে ইমামতি না করতে আইনি নোটিশ দেয়া হয়েছে।
আইনি নোটিশ পাওয়া ওই ইমাম গ্রামের মৃত হাসমত আলী মুন্সীর ছেলে। হিরন্যকান্দি গ্রামের বাসিন্দা মো: দেলোয়ার শেখের পক্ষে গোপালগঞ্জ জজ কোর্টের আইনজীবি মো: সরোয়ার শিকদার এ নোটিশ দিয়েছেন।
নোটিশে বলা হয়েছে, সৈয়দ ইকরাম আলী মুন্সী ধর্মীয় কোন প্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষা গ্রহণ করেননি। তিনি এলাকার লাঠিয়াল ও প্রভাবশালী হওয়ায় পেশি শক্তির জোরে মসজিদে ইমামতি করেন। মসজিদ পরিচালনা কমিটি কর্তৃক নিয়োগপ্রাপ্ত বৈধ ইমাম থাকা সত্ত্বেও তিনি নিজেকে ইমাম দাবি করেন। ওই ইমাম মিলাদ ও দোয়া উপলক্ষে মসজিদে মুসল্লিদের দেয়া হাদিয়াভোগ করেন,মসজিদকে ব্যক্তিগত ঘরের মত ব্যবহার করেন, মসজিদের বারান্দায় কাঠমিস্ত্রী দিয়ে ফার্নিচার তৈরীর কাজ করান,মটর দিয়ে পানি তুলে নিজের ভবন নির্মাণ কাজে ব্যবহার করেন এবং মসজিদের জায়গার গাছপালার ফল-ফলাদি ভোগ করেন। এলাকার মুসল্লিরা এসব বিষয় বাধা দিলেও ইমাম সৈয়দ ইকরাম তা মানেন না।
ওই নোটিশে ১০ দিনের মধ্যে তাকে ইমামতি করা থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই এলাকায় বড় ধরণের সংঘাতের আশংকা করছেন স্থানীয়রা।


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: