বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ১১:১৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দুমকিতে ২শ’ পিস ইয়াবাসহ আটক ২ দৌলতপুরে ৯ ইটভাটায় ২৯ লক্ষ টাকা জরিমানা আদায় কুমিল্লার কাছে ধরাশায়ী সাকিব-গেইলদের বরিশাল ফেনীতে ছাত্রদলের প্রতিকী অনশন ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত পুলিশের সেবাপ্রার্থীরা যেন হয়রানির শিকার না হয়: রাষ্ট্রপতি ঝিনাইগাতীতে অজগর সাপ উদ্ধার নাজিরপুরে ছাত্রদলের প্রতীকী অনশন ফেনীতে মাদকের মামলায় ২ নারীর যাবজ্জীবন বকশীগঞ্জে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় জরিমানা ডাউনিং স্ট্রিটের পার্টি তদন্ত করছে ব্রিটিশ পুলিশ ভোলাহাটে সমবায় কর্মকর্তার অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন ভোলাহাটে নবাগত জেলা প্রশাসকের মতবিনিময় আটোয়ারীতে সভাপতির স্বাক্ষর জাল করে সরকারি টাকা আত্মসাৎ মতলব উত্তরে যুবলীগ নেতার শীতবস্ত্র বিতরণ মানিকগঞ্জ যুবলীগের উদ্যোগে শীর্তাতদের মাঝে কম্বল বিতরণ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে সভাপতি বাদশা ভাঙ্গুড়ায় মোটরসাইকেল কিনে না দেয়ায় কিশোরের আত্মহত্যা শিবগঞ্জে মাদ্রাসার সহকারী সুপার ৫দিন ধরে নিখোঁজ রাণীশংকৈলে ইয়াবাসহ ২ যুবক গ্রেফতার

ইরাক নির্বাচন: জয়ের পথে মুকতাদা আল-সদর

রিপোর্টারের নাম
প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ১১:১৭ পূর্বাহ্ন
ইরাক নির্বাচন: জয়ের পথে মুকতাদা আল-সদর
ইরাক নির্বাচন

ইরাকের পার্লামেন্ট নির্বাচনে ভরাডুবি হয়েছে ইরান সমর্থিত ফাতাহ অ্যালায়েন্সের। ৯৪ ভাগ ভোট গণণা শেষে, প্রাথমিক ফল বলছে, ১৮ প্রদেশেই ভালো অবস্থানে শিয়া নেতা মুকতাদা আল সদরের দল।

নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতি ছিল রেকর্ডসংখ্যক কম, মাত্র ৪১ শতাংশ। এতে ক্ষমতাসীন অভিজাতদের কাছ থেকে ক্ষমতা হাতিয়ে নেওয়ার সুযোগ তৈরি হয়েছে। যদিও ধর্মীয় দলগুলোকে ক্ষমতার প্রভাববলয় থেকে সরানো যাচ্ছে না।

৩২৯ আসনের ইরাকি পার্লামেন্টে অবশ্য একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিশ্চিত করতে পারবে না কোনো দলই। হাদি আল আমেরির নেতৃত্বাধীন ফাতাহ অ্যালায়েন্সের প্রার্থীরা বেশিরভাগ আসনেই সদরের দলের কাছে পরাস্ত হওয়ার পথে।

এর আগে, ২০১৮ সালে ৭০ আসনে জয় পেয়েছিলো সদরের দল।

২০০৩ সালে মার্কিন নেতৃত্বাধীন আগ্রাসনের পর থেকে সরকার ও সরকার গঠনে ইরাকের শিয়া গোষ্ঠীগুলো প্রাধান্য বিস্তার করছে। সুন্নি নেতা প্রেসিডেন্ট সাদ্দাম হোসেনকে উৎখাতের পর ইরাকের পার্লামেন্টে শিয়া সংখ্যাগরিষ্ঠতা বাড়ছে। এছাড়া কুর্দিরাও ক্ষমতার স্বাদ পাচ্ছেন।

২০১৯ সালে ব্যাপক গণবিক্ষোভে সরকার পতনের পর নির্ধারিত সময়ের কয়েক মাস আগেই রোববারের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। দেশটির রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের ওপর সাধারণ মানুষের মারাত্মক ক্ষোভ রয়েছে। তাদের অভিযোগ, রাজনীতিবিদরা দেশ বেচে দিয়ে নিজেরা বিত্তশালী হচ্ছেন।


অন্যান্য সংবাদ
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: