রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:০৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
নির্দিষ্ট গোষ্ঠী আমাদের হুমকি দিয়েছিল: ডেভিড হোয়াইট তৃণমূলের নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগের প্রাণ : তথ্যমন্ত্রী আরও তিন শাখা উদ্বোধন হলো প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের খাদে পড়ল বাস ৩০ যাত্রী নিয়ে সরকার খালেদা জিয়াকে ভয় পায় : মির্জা ফখরুল দেশে করোনায় শনাক্ত নামল ছয় শতাংশের নিচে সামঞ্জস্যপূর্ণ সাজার চর্চা নিশ্চিতে নীতিমালা প্রণয়নে হাইকোর্টের রুল নিজ চার সন্তানকে বিষ খাইয়ে, আগুন পুড়ে আত্মহত্যাচেষ্টা মায়ের! মামলায় ‘পলাতক’, অথচ স্কুলের বেতন তুলছেন শিক্ষক রাণীশংকৈলে বীরঙ্গনা ঐক্য সংঘের সমাবেশ ইঁদুর মারার বিষকে চকলেট ভেবে খেয়ে শিশুর প্রাণ গেল বিয়ে বাড়িতে ছবি তোলাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে আহত ২০ কালকিনিতে প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে বেঁড়া দিয়ে চাষাবাদ লোকালয়ে আসা হরিণ বনে ফেরত বাংলাদেশ চাইলে নির্বাচন প্রক্রিয়ায় সহযোগিতা করবে জাতিসংঘ আগামীকাল দেবীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন, ঝুঁকিতে ৬ কেন্দ্র আত্রাইয়ে আশ্রয়ন প্রকল্পের নির্মিত হলো দৃষ্টিনন্দন শিশুপার্ক ভোলায় গ্রাহকদের হাজার কোটি টাকা নিয়ে উধাও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই: তথ্য প্রতিমন্ত্রী অবশেষে তামিম মাঠে ফিরে এলেন

অসুস্থ শরীরেও সেবা অব্যাহত রেখেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার

ভোলা প্রতিনিধি
প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:০৪ অপরাহ্ন
অসুস্থ শরীরেও সেবা অব্যাহত রেখেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার

ভোলার লালমোহন সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রাসেলুর রহমান। তিনি গত শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) বাসার সিঁড়ি দিয়ে নামতে গিয়ে পায়ে মারাত্মকভাবে আঘাত প্রাপ্ত হন। এরপর চিকিৎসার জন্য তাকে ডাক্তারের কাছে নিলে বাম পায়ে ফ্র্যাকচারের কারণে প্লাস্টার করানো হয়। পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাসেলুর রহমানকে ১৪ দিন বেড রেস্টে থাকার পরামর্শ দেন চিকিৎসক। তবে অসুস্থ শরীর নিয়েও তিনি নিয়মিত অফিসের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। প্রতিদিন লালমোহন সার্কেল অফিসে বিভিন্ন ধরনের সেবা নিতে তার কাছে অর্ধশতাধিক মানুষ আসেন। অসুস্থ শরীরে মানুষের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে কথা বলতে দেখা গেছে দায়িত্ববান পুলিশ কর্মকর্তা মো. রাসেলুর রহমানকে।
ডাক্তারের পরামর্শের পরেও অসুস্থ শরীরে অফিসের কার্যক্রম পরিচালনার ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অসুস্থতার কারণে ডাক্তার ১৪ দিন সম্পূর্ণ রেস্টে থাকতে বলেছে। তবে তা পারছি না। লালমোহন ও বোরহানউদ্দিন দুই উপজেলার দূ-দূরান্ত থেকে অনেক মানুষ আসছে তাদের সমস্যা নিয়ে। তাদের দুর্ভোগ লাঘবে মানবিক দিক বিবেচনা করে নিজে অসুস্থ হওয়ার পরেও অফিসের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছি। কেউ যাতে আমার কারণে ভোগান্তির শিকার না হয় সবসময় সে চেষ্টাই করে যাচ্ছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ